বাংলাদেশকে স্বনির্ভর করার রূপকার শেখ হাসিনা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬:০৩ পিএম, ২৪ মে ২০২২

মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা বলেছেন, বাংলাদেশ আর সাহায্যনির্ভর নয়, এখন স্বনির্ভর দেশ। বাংলাদেশ এখন ঋণদাতা। দেশকে আত্মনির্ভরশীল ও স্বয়ংসম্পূর্ণ করার রূপকার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

‘তিনি নিজে স্বপ্ন দেখেন, অন্যকে স্বপ্ন দেখান এবং সেই স্বপ্ন বাস্তবায়ন করেন। সাহসী ও দূরদর্শী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মা সেতু, মেট্রোরেল ও কর্ণফুলী মেগা প্রকল্প বাস্তবায়ন করে, প্রমাণ করেছেন বঙ্গবন্ধুর বিখ্যাত উক্তি, আমাদের দাবায়ে রাখতে পারবা না’।

মঙ্গলবার (২৪ মে) মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা ঢাকায় বেইলি রোডে জাতীয় মহিলা সংস্থার বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব অডিটোরিয়ামে ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন: সমৃদ্ধি ও অগ্রগতি’ শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ছয় বছরের নির্বাসিত থাকার পর বঙ্গবন্ধু কন্যা দেশ ও দলের কঠিন দু:সময়ে সামরিক শাসকের রক্তচক্ষু ও নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে দেশে ফেরেন। দেশে ফিরে তিনি গণতন্ত্র পুন:প্রতিষ্ঠা ও জনগণের ভাত ও ভোটের অধিকার আদায়ে সংগ্রাম শুরু করেন।

‘বলিষ্ঠ চিত্তে নির্ভীক স্বাধীনসত্তায় আত্মপ্রত্যয়ীনেত্রী তথাকথিত শাসক ও শোষকগোষ্ঠীর রক্তচক্ষু, অপপ্রচার এবং তাদের স্বার্থসংশ্লিষ্ট সকল অশুভ ষড়যন্ত্র ও চক্রান্তকে উপেক্ষা করে সঠিক সময়ে সঠিক পরিকল্পনা নীতিমালা প্রণয়ন ও অগ্রগতিশীল কৌশল নিয়েছেন।’

ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা, যার মাধ্যমে বাংলাদেশ আজ উন্নয়নের মহাসড়কে অপ্রতিরোধ্য গতিতে অগ্রসরমান। জনগণের প্রতি রয়েছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অপরিসীম ভালোবাসা ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি জনগণের আস্থা ও নির্ভরশীলতা।

তিনি বলেন, বিশ্বে দরিদ্র্য, ক্ষুধার্ত, ভুবুক্ষ ও প্রাকৃতিক দুর্যোগের দেশ হিসেবে পরিচিত ছিল বাংলাদেশের। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জাদুকরী নেতৃত্বে দারিদ্র্য হ্রাস, কর্মসংস্থান সৃষ্টি ও অবকাঠামো উন্নয়নের মাধ্যমে বাংলাদেশ উন্নয়নশীল দেশে পরিণত হয়েছে।

জাতীয় মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যান চেমন আরা তৈয়বের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সংসদীয় স্থায়ী কমিটির চেয়ারম্যান মেহের আফরোজ চুমকি এমপি ও মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. মু: আনোয়ার হোসেন হাওলাদার।

সভায় বক্তব্য দেন বাংলাদেশ মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাফিয়া খাতুন, ঢাকা দক্ষিণ মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাবেরা বেগমসহ জাতীয় মহিলা সংস্থার পরিচালনা পরিষদের সদস্যরা।

আরও উপস্থিত ছিলেন জয়িতা ফাউন্ডেশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আফরোজা খান, অতিরিক্ত সচিব মো. মহিউদ্দীন আহমেদ, অতিরিক্ত সচিব মোহাম্মদ মুহিবুজ্জামান।

স্বাগত বক্তব্য দেন জাতীয় মহিলা সংস্থার নির্বাহী পরিচালক সাকিউন নাহার বেগম। আলোচনা পর্ব শেষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে কেক কাটা হয়। এর পরে ছিল মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

আইএইচআর/এমআরএম/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]