অতিরিক্ত ডিআইজি পদে রেকর্ড সংখ্যক পদোন্নতি শিগগির

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০১:১০ পিএম, ২৫ মে ২০২২
ফাইল ছবি

পুলিশ সুপার (এসপি) থেকে অতিরিক্ত উপ-পুলিশ মহাপরিদর্শক (অতিরিক্ত ডিআইজি) পদে রেকর্ড সংখ্যক পদোন্নতি দিতে যাচ্ছে সরকার। এজন্য চলতি মাসে ডিপার্টমেন্টাল প্রমোশন কমিটির (ডিপিসি) বৈঠকের দিন নির্ধারিত করা হয়েছে। আর ওই বৈঠকে নির্ধারণ করা হবে কারা পাবেন পদোন্নতি। বৈঠকটি আগামী ৩০ মে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। জাগো নিউজের হাতে আসা একটি চিঠিতে এমন তথ্যই পাওয়া গেছে।

চিঠিতে বলা হয়, জননিরাপত্তা বিভাগের সিনিয়র সচিবের সভাপতিত্বে মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে পুলিশ কর্মকর্তাদের পদোন্নতি সংক্রান্ত বিভাগীয় পদোন্নতি কমিটির এক সভা অনুষ্ঠিত হবে। সভায় সম্মানিত সদস্যদের যথাসময়ে উপস্থিত থাকার জন্য নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হলো।

পুলিশ সদরদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, অতিরিক্ত ডিআইজির যে ১২৩টি পদ খালি আছে, তার মধ্যে নতুন সৃষ্ট ৮৮টি। এ ছাড়া আগে থেকে কিছু পদ খালি আছে। এবার তাই এখানে বড় পদোন্নতির আভাস মিলছে। তবে সবকটি পদে একসঙ্গে নাকি কয়েক ধাপে পদোন্নতি দেওয়া হবে সেটি বৈঠকের পর জানা যাবে। তারপরই পদোন্নতির প্রজ্ঞাপন জারি হবে মন্ত্রণালয় থেকে।

বর্তমানে পুলিশের অতিরিক্ত ডিআইজির ১২৩টি পদ শূন্য রয়েছে। এসব পদ পূরণে একসঙ্গে পদোন্নতি দেওয়া হলে, তা হবে পুলিশ বাহিনীর ইতিহাসে সবচেয়ে বড় পদোন্নতি।

জানা গেছে, এবারের অতিরিক্ত ডিআইজি পদে পদোন্নতিতে প্রাধান্য দেওয়া হতে পারে বিসিএস পুলিশ ক্যাডারের ২০, ২১ ও ২২তম ব্যাচকে। পাশাপাশি ২৪তম ব্যাচের কিছু কর্মকর্তাকেও পদোন্নতির তালিকায় রাখা হতে পারে।

পুলিশ সদরদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, ৩৮০ জন পুলিশ সুপারের (এসপি) নামের তালিকা প্রস্তুত করেছে পুলিশ সদরদপ্তর। এরইমধ্যে তালিকাটি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে। সেখান থেকে বাছাই করে ১২৩ জনকে অতিরিক্ত ডিআইজি পদে পদোন্নতি দেওয়া হবে।

এর আগে গত বছর দুই দফায় অতিরিক্ত ডিআইজি পদে ২৬ জনকে পদোন্নতি দেয় সরকার। এর মধ্যে ১৩ জানুয়ারি ১৯ জন ও ২ মে সাতজন পদোন্নতি পান।

এছাড়া সর্বশেষ গত ১১ মে অতিরিক্ত ডিআইজি থেকে ডিআইজি পদে ৩২ পুলিশ কর্মকর্তাকে পদোন্নতি দেয় সরকার। এরমধ্যে ২০তম ব্যাচের ১৬ জন ডিআইজি হন। এছাড়া এ ব্যাচের অনেকে অতিরিক্ত ডিআইজি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

টিটি/এমএএইচ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]