ঘনচিনির প্যাকেটে সোডা অ্যাশ লিখে আমদানি, বন্দরে জব্দ

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক চট্টগ্রাম
প্রকাশিত: ০৯:২৮ পিএম, ২৬ মে ২০২২

সোডা অ্যাশ ঘোষণা দিয়ে আনা আমদানি নিষিদ্ধ ১৯ টন ঘনচিনি জব্দ করেছে চট্টগ্রাম কাস্টমস। বৃহস্পতিবার (২৬ মে) বিকেলে চালানটি জব্দ করার কথা জানায় চট্টগ্রাম কাস্টমস কর্তৃপক্ষ।

চট্টগ্রাম কাস্টমস সূত্রে জানা গেছে, রাজধানী ঢাকার বংশাল এলাকার আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান ডিএসএস এন্টারপ্রাইজ সোডা অ্যাশ লাইট ঘোষণা দিয়ে চীন থেকে এক কন্টেইনার পণ্য আমদানি করে। চীনের জিনদাও বন্দর থেকে গত ১৮ মে এইচ আর হেরা নামের জাহাজে করে কন্টেইনারটি চট্টগ্রাম বন্দরে আসে। এরপর পণ্য চালানটি নিয়ে সন্দেহ হলে পোর্ট কন্ট্রোল ইউনিটের (পিসিইউ) রিস্ক ম্যানেজমেন্ট এনালাইসিসের মাধ্যমে কাস্টমসের এসাইকুডা ওয়ার্ল্ড সিস্টেমে চালানটির বিল অব লিডিং (বিএল) লক করা হয়।

এরপর ২৫ মে কাস্টমসের অডিট, ইনভেস্টিগেশন অ্যান্ড রিসার্চ (এআইআর) টিম পণ্যচালানটি শতভাগ কায়িক পরীক্ষা করে মিথ্যা ঘোষণার প্রমাণ পায়। এআইআর টিম দেখতে পায় কন্টেইনারটিতে মাত্র এক টন সোডা অ্যাশ রয়েছে। অবশিষ্ট ১৯ টন আমদানি নিষিদ্ধ ঘনচিনি। এসব ঘনচিনির প্যাকেটের ওপরে সোডা অ্যাশ লাইট লেখা রয়েছে।

চট্টগ্রাম কাস্টমসের উপ-কমিশনার (প্রিভেন্টিভ) সালাউদ্দিন রিজভী জাগো নিউজকে জানান, ঘনচিনি সাধারণ চিনির চেয়ে ৫০ গুণ বেশি মিষ্টি। এসব ঘনচিনি ক্যান্সার রোগ তৈরি করে। চট্টগ্রাম কাস্টমসের কঠোর নজরদারির কারণে মিথ্যা ঘোষণায় ঘনচিনি আমদানির চালানটি জব্দ করতে সমর্থ হয় বলে জানান তিনি।

কাস্টমস আইন অনুযায়ী আমদানিকারকসহ সংশ্লিষ্ট সবার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান এই কাস্টমস কর্মকর্তা।

ইকবাল হোসেন/কেএসআর/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]