ছাদের পাশে বৈদ্যুতিক খুঁটি, আগুনে পুড়ে গেলো শিশুর মুখ

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৪:১১ পিএম, ২৭ মে ২০২২
ফাইল ছবি

হাসপাতালের বেডে যন্ত্রণায় কাতরাচ্ছেন নয় বছরের শিশু ইফরান। বাইরে বসে কান্না করছেন মা জেসমিন আক্তার। শুক্রবার (২৭ মে) সকালে ছাদের পাশে থাকা বৈদ্যুতিক খুঁটি থেকে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট পুড়ে যায় শিশু ইফরানের মুখ। কুমিল্লা গৌড়িপুর থেকে রাজধানীর শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে আনা হয় তাকে। সেখানেই ইফরানের চিকিৎসা চলছে।

মা জেসমিন আক্তার বলেন, সকালে ঘুড়ি বানানোর জন্য ছাদে উঠে শিশু ইফরান। ছাদ থেকে বাড়ির পাশে থাকা বাঁশঝাড় থেকে বাঁশ আনার জন্য হাত বাড়ায় সে। এসময় ভবন ঘেঁষে দাঁড়িয়ে থাকা বৈদ্যুতিক খুঁটির সঙ্গে স্পর্শ লাগলে ইফরানের মুখ পুড়ে যায়।

তিনি আরও বলেন, কারেন্টের তার তাকে ধাক্কা মেরে ফেলে দেয়। পরে উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হলে সেখান থেকে ইফরানকে ঢাকায় পাঠানো হয়।

বার্ন ইউনিটের ইমার্জেন্সি বিভাগের চিকিৎসক সাঈদ নূর জাগো নিউজকে বলেন, ইফরানের শরীরের ১০ থেকে ১৫ শতাংশের মতো পুড়ে গেছে। আমরা স্যালাইন দিয়ে অবজারভেশনে রেখেছি। যদি প্রয়োজন হয়, ভর্তি রাখবো। খুব বেশি মুমূর্ষু না হলে ভর্তি নেবো না। যেহেতু ইলেকট্রিক বার্ন, তাই তেমন কোনো সমস্যা হবে না। কিন্তু মুখে আঘাত পেয়েছে বলে তার মা-বাবা বেশি দুশ্চিন্তায় পড়ে গেছেন।

এমআইএস/আরএডি/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]