অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে ব্যবসায়ী-শিক্ষার্থী

ঢামেক প্রতিবেদক
ঢামেক প্রতিবেদক ঢামেক প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮:৪২ এএম, ২৮ জুন ২০২২
ফাইল ছবি

রাজধানীর বনানী ও সাভারের হেমায়েতপুরে অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে পড়েছেন এক ব্যবসায়ী ও এক শিক্ষার্থী। অজ্ঞান পার্টির সদস্যরা কৌশলে অচেতন করে তাদের কাছ থেকে মোবাইল ও টাকা হাতিয়ে নিয়েছে।

ভুক্তভোগীরা হলেন, হেমায়েতপুরের ব্যবসায়ী আব্দুল মান্নান (৫৫) ও বনানীর শিক্ষার্থী মো. ফয়সাল আহমেদ (২৪)।

একজনকে সোমবার (২৭ জুন) সন্ধ্যায় ও আরেকজনকে রাত ৯টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

ফয়সালের বাবা শাহজাহান বলেন, আমার ছেলে গাজীপুর থেকে ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে ভর্তির কোচিং করে ঢাকায় ফিরছিলেন। পথে বাসের মধ্যে অজ্ঞান পার্টির সদস্যরা তাকে অচেতন করে টাকা ও মোবাইল নিয়ে যায়। পরে বনানীতে একটি বাস কাউন্টারে তাকে নামিয়ে দেওয়া হয়। এসময় তার কাছে একটি কাগজে আমাদের মোবাইল নাম্বার ছিল। সেখান থেকে আমাদের খবর দেওয়া হয়। পরে তাকে উদ্ধার করে ঢামেকে নিয়ে আসলে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে ভর্তি করা হয়।

তিনি আরও বলেন, আমাদের গ্রামের বাড়ি কুমিল্লার দেবিদ্বারে। বর্তমানে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিববাড়ি স্টাফ কোয়ার্টারে থাকি।

অপরদিকে ভুক্তভোগী আব্দুল মান্নানের শ্যালক সুমন জানান, তার দুলাভাই ব্যবসা করেন। পাশাপাশি হেমায়েতপুরে বাসা রয়েছে। মিরপুর বাঙলা কলেজের পাশেও তার একটি বাসা রয়েছে। সোমবার হেমায়েতপুরের একটি ব্যাংক থেকে ৫৫ হাজার টাকা তুলে বাসে করে ঢাকায় ফিরছিলেন। পথে অজ্ঞান পার্টির সদস্যরা তাকে অচেতন করে কাছে থাকা টাকা নিয়ে নেয়। পরে অচেতন অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে ঢামেকে আনা হয়। এখন তিনি সেখানেই চিকিৎসাধীন।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ (পরিদর্শক) মো. বাচ্চু মিয়া বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, অজ্ঞান পার্টির সদস্যরা ভুক্তভোগীদের কাছে থাকা মোবাইল ও ৬০ হাজার টাকা কৌশলে নিয়ে নিয়েছে।

কাজী আল-আমিন/ইএ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]