চট্টগ্রামে বসতঘরে ডাকাতি করে টাকা-স্বর্ণালঙ্কার লুট, আহত ১০

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক চট্টগ্রাম
প্রকাশিত: ০৩:৫৬ পিএম, ২৮ জুন ২০২২

চট্টগ্রামের বোয়ালখালীতে বসতঘরে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে নগদ টাকা ও স্বর্ণালঙ্কারসহ মূল্যবান মালামাল ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। এ সময় ডাকাত দলের সদস্যদের মারধরে ভুক্তভোগী পরিবারের ১০ জন আহত হয়েছেন।

সোমবার (২৭ জুন) দিনগত রাত ২টার দিকে বোয়ালখালী থানাধীন সারোয়াতলী মজু ভান্ডার এলাকায় নুরুচ্ছাফার বসত ঘরে এ ডাকাতির ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, নুরুচ্ছফার দোতলা পাকা ভবনের পেছনের লোহার গ্রিলের তালা ভেঙে ২০-২৫ জনের সংঘবদ্ধ একটি ডাকাত দল ঘরে প্রবেশ করে অস্ত্রের মুখে পরিবারের সদস্যদের জিম্মি করে। এরপর ঘরে থাকা আালমারি ভেঙে নগদ টাকা, স্বর্ণালঙ্কার, মোবাইল ও মূল্যবান সামগ্রী লুটে নেয় তারা।

jagonews24

নুরুচ্ছফার ছেলে ওবাইদুল আকবর তারেক জানান, তাদের দোতলা ভবনের নিচ তলায় তার চাচা আহমদ ছাফা ও আনোয়ার ছাফা এবং দ্বিতীয় তলায় তারা পরিবার নিয়ে থাকেন। সোমবার রাত ২টার দিকে ডাকাত দলের দরজা ভাঙার শব্দে ঘুম ভাঙে। ডাকাতরা চোখের পলকে গ্রিলের তালা কেটে ঘরে প্রবেশ করে।

‘এ সময় ডাকাত দল অস্ত্রের মুখে পরিবারের সদস্যদের জিম্মি করে ফেলে। তারা স্বর্ণালঙ্কার দেওয়ার জন্য ঘরের মহিলাদের ওপর বিভিন্ন ধরনের চাপ সৃষ্টি করতে থাকে। এতে রাজি না হওয়ায় তারা পরিবারের সবাইকে এলোপাতাড়ি মারধর করে ভয়ভীতি দেখায়।’

jagonews24

‘তাদের হাতে দা, ছুরি, লোহার রড ও আগ্নেয়াস্ত্র ছিলো। পরে ডাকাত দল নগদ ২ লাখ ৭৫ হাজার টাকা, চার ভরি স্বর্ণ, চারটি মোবাইল ও মূল্যবান সামগ্রী নিয়ে যায়।’

ডাকাতদের মারধরে আহতরা হলেন- শাহনাজ (৩৮), আনোয়ার ছাফা (৫৪), আফরিন সুলতানা (১৭), হাবিবুল বাশার (১৪), ফরিদা বেগম (৩৩), আহমদ ছাফা (৫২), তাহের ইসলাম (১৮), ওবাইদুল আকবর তারেক (২৪), নুর মহল বেগম (৪০) ও নুরু ছাফা (৫৬)।

এ ঘটনায় বোয়ালখালী থানা পুলিশ ও পটিয়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো.তারিকুল ইসলাম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন বলে জানা গেছে। বোয়ালখালী থানার ওসি আবদুর রাজ্জাক বলেন, ডাকাতির ঘটনায় মামলা নেওয়া হয়েছে। এ ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

ইকবাল হোসেন/এমপি/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]