জুন মাসে ১৩ গণপিটুনির ঘটনায় নিহত ৭

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৭:১৯ পিএম, ৩০ জুন ২০২২
প্রতীকী ছবি

‘জুন মাসে গণপিটুনিতে হতাহতের ঘটনা উদ্বেগজনকভাবে বেড়েছে। এ মাসে অন্তত ১৩টি গণপিটুনির ঘটনা ঘটেছে, যেখানে সাতজন নিহত ও নয়জন গুরুতর আহত হয়েছেন। চুরি-ডাকাতির সন্দেহে ও নারীঘটিত কারণে এসব ঘটনা ঘটেছে।

বৃহস্পতিবার (৩০ জুন) গণমাধ্যমে প্রকাশিত তথ্যের বরাত দিয়ে এক বিজ্ঞপ্তিতে মানবাধিকার সংস্কৃতি ফাউন্ডেশন ( এমএসএফ) এসব তথ্য জানায়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, জুন মাসে নারী-শিশুদের প্রতি সহিংসতা যেমন: ধর্ষণ, সংঘবদ্ধ ধর্ষণ, হত্যা, আত্মহত্যা ও পারিবারিক সহিংসতার ঘটনা বিগত মাসগুলোর মতোই অব্যাহত রয়েছে, যা অত্যন্ত উদ্বেগজনক। এ মাসে ৩৩৭টি নারী-শিশু নির্যাতনের ঘটনা ঘটেছে। যার মধ্যে ধর্ষণের ঘটনা ৭৬টি, সংঘবদ্ধ ধর্ষণ ১৬টি, ধর্ষণের পর হত্যার ঘটনা ঘটেছে চারটি।

সংগঠনটি জানায়, ধর্ষণের শিকার ৭৬ জনের মধ্যে ১৪ জন শিশু, ৪৩ জন কিশোরী রয়েছে। এ মাসে ২৪ জন কিশোরী ও ৫২ জন নারীসহ মোট ৭৬ জন আত্মহত্যা করেছেন। এদের মধ্যে দুজন প্রতিবন্ধী নারী রয়েছেন। অ্যাসিড নিক্ষেপের শিকার হয়েছেন দুই নারী। তাছাড়া দুজন শিশু ও ছয়জন কিশোরী নিখোঁজ হয়েছে।

সংগঠনটি আরও জানায়, একই সময়ের মধ্যে রাজনৈতিক সহিংসতার ঘটনা ঘটেছে ২৫টি। ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে ২৩ জনকে আসামি করা হয়েছে, যেখানে দুজন সাংবাদিকসহ গ্রেফতার হয়েছেন ১১ জন। অন্যদের মধ্যে একজন বিরোধী দলীয় কর্মী, একজন ছাত্রলীগের সাবেক কর্মী, দুজন শিক্ষার্থী ও পাঁচজন যুবক রয়েছেন।

১০টি মামলার মধ্যে আটটি করা হয়েছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান, প্রধানমন্ত্রী, সরকারের উচ্চ পর্যায়ের নেতা/কর্মকর্তা, ধর্ম ও ধর্মীয় ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে ফেসবুকে সমালোচনামূলক পোস্ট শেয়ার বা কমেন্ট করার জন্য। এছাড়া পদ্মা সেতু নিয়ে ভিডিও করায় একটি, ধর্ষণের সময় ভিডিও ধারণের জন্য একটি ও আদালত চলাকালে ভিডিও ধারণের জন্য আরও একটি মামলা হয়েছে।

এসএম/এসএএইচ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]