কমলাপুরে রাত থেকেই রেলস্টেশনে আগাম টিকিট প্রত্যাশীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০২:৩০ এএম, ০১ জুলাই ২০২২
ছবি: জাগো নিউজ

প্রতিবারই ঈদের ছুটি কাটাতে ট্রেনের টিকিটের জন্য স্টেশনে ভিড় জমান সাধারণ মানুষ। কোরবানির ঈদকে ঘিরে শুক্রবার (১ জুলাই) থেকে ট্রেনের আগাম টিকিট বিক্রি শুরু হবে। শুরুর আগের রাত থেকেই কমলাপুর রেলস্টেশনে ভিড় জমিয়েছেন টিকিট প্রত্যাশীরা।

শুক্রবার সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত চলবে আগাম টিকিট বিক্রি। অনলাইনেও সকাল ৯টা থেকেই শুরু হবে টিকিট বিক্রি। শুক্রবার কেনা যাবে ৫ জুলাইয়ের টিকিট।

জাতীয় পরিচয়পত্র বা জন্ম সনদের ফটোকপি দেখিয়ে কাউন্টার থেকে আগাম টিকিট কেনা যাবে। একজন কিনতে পারবেন সর্বোচ্চ ৪টি টিকিট।

সরেজমিনে দেখা গেছে, ৫ জুলাইয়ের আগাম টিকিট কাটতে রাত থেকেই ভিড় জমিয়েছেন টিকিট প্রত্যাশীরা। সারারাত লাইনে দাঁড়িয়ে শুক্রবার সকালেই টিকিট কেনার অপেক্ষায় রয়েছেন সবাই। অনেককেই দেখা যায় স্টেশনের মেঝেতে বসে রয়েছেন। কেউবা সময় কাটাতে মেতেছেন খোশ গল্পে ও লুডু খেলায়।

রাজশাহীর ৬ জুলাইয়ের ট্রেনের আগাম টিকিট কিনতে রাত ১১টা থেকেই রেল স্টেশনে অবস্থান নিয়েছেন শাহীন। তিনি জাগো নিউজকে জানান, অনলাইনে টিকিট কাটতে খুব ঝামেলা হয়। অনেক সময় তাদের সাইট কাজ করে না। আর ৫ তারিখেই যেন বাড়ি যেতে পারি তাই কয়েকজন বন্ধু মিলেই স্টেশনে চলে এসেছি।

খুলনার আগাম টিকিট কাটবেন বলে অপেক্ষা করছেন তনয়। তিনি সড়কপথের নানা সমস্যার কথা জানান। যত দ্রুত সম্ভব ঈদের ছুটিতে বাড়ি যাওয়ার জন্যই তিনি টিকিট কাটতে এসেছেন।

jagonews24

রেলওয়ে সূত্রে জানা গেছে, কমলাপুর রেলস্টেশনে ভিড় কমাতে ঢাকার ৬ কেন্দ্র থেকে টিকিট নেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

কেন্দ্রগুলো হলো- কমলাপুর রেলস্টেশন, কমলাপুর শহরতলী প্ল্যাটফর্ম, ঢাকা বিমানবন্দর স্টেশন, তেজগাঁও স্টেশন, ঢাকা ক্যান্টনমেন্ট স্টেশন ও ফুলবাড়িয়া (পুরাতন রেলওয়ে স্টেশন)। এছাড়াও গাজীপুরের জয়দেবপুর রেলওয়ে স্টেশন থেকেও পাওয়া যাবে টিকিট।

রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ জানায়, ঢাকার কমলাপুর স্টেশনে সমগ্র উত্তরাঞ্চলগামী আন্তঃনগর ট্রেনের টিকিট, কমলাপুর শহরতলী প্লাটফর্ম থেকে রাজশাহী ও খুলনাগামী ট্রেনের টিকিট, ঢাকা বিমানবন্দর স্টেশন থেকে চট্টগ্রাম ও নোয়াখালীগামী আন্তঃনগরের টিকিট, তেজগাঁও স্টেশনে পাওয়া যাবে ময়মনসিংহ, জামালপুর, দেওয়ানগঞ্জগামী ঈদ স্পেশাল ট্রেনের টিকিট।

এছাড়া ঢাকা ক্যান্টনমেন্ট স্টেশনে পাওয়া যাবে নেত্রকোণাগামী মোহনগঞ্জ ও হাওর এক্সপ্রেস ট্রেনের টিকিট, ফুলবাড়িয়া স্টেশন থেকে পাওয়া যাবে সিলেট ও কিশোরগঞ্জগামী টিকিট। গাজীপুরের জয়দেবপুর রেলওয়ে স্টেশন থেকে পঞ্চগড়ের বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম ঈদ স্পেশাল ট্রেনের টিকিট বিক্রি হবে।

শুক্রবার আগাম টিকিট বিক্রির প্রথম দিনে পাওয়া যাবে ৫ জুলাইয়ের টিকিট। ২ জুলাই পাওয়া যাবে ৬ জুলাইয়ের আগাম টিকিট, ৩ জুলাই পাওয়া যাবে ৭ জুলাইয়ের টিকিট, ৪ জুলাই পাওয়া যাবে ৮ জুলাইয়ের টিকিট ও ৫ জুলাই দেওয়া হবে ৯ জুলাইয়ের টিকিট।

৭ জুলাই থেকে পাওয়া যাবে ফিরতি টিকিট। ৭ জুলাই পাওয়া যাবে ১১ জুলাইয়ের ফিরতি টিকিট, এরপর ৮ জুলাই পাওয়া যাবে ১২ জুলাইয়ের টিকিট, ৯ জুলাই মিলবে ১৩ জুলাইয়ের টিকিট ও ১১ জুলাই পাওয়া যাবে ১৪ ও ১৫ জুলাইয়ের টিকিট।

এছাড়া মোট টিকিটের অর্ধেক পাওয়া যাবে অনলাইনে। তবে বিক্রি করা ঈদযাত্রার আগাম টিকিট ফেরত নেওয়া হবে না বলে জানিয়েছেন রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ। এছাড়া স্পেশাল ট্রেনের কোনো টিকিট অনলাইনে পাওয়া যাবে না। শুধু স্টেশন কাউন্টারে বিক্রি করা হবে।

এএএম/এমআরএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]