কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশনের বিরুদ্ধে জমি দখলের অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬:৫৭ পিএম, ০২ জুলাই ২০২২

পার্বত্য বান্দরবানে কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশনের বিরুদ্ধে নানাভাবে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে। প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান শহীদ আল বোখারীর বিরুদ্ধে প্রতারণা, দখলবাজ, মামলাবাজ, সন্ত্রাস ও জালিয়াতির অভিযোগ তুলেছেন বেশ কয়েকটি পরিবার।

শনিবার (২ জুলাই) ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) সাগর-রুনি মিলনায়তনে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব অভিযোগ করেন ভুক্তভোগীরা। এসময় ভুক্তভোগী পরিবারের পক্ষে ১৩ জন সদস্য উপস্থিত ছিলেন। লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন মো. আবু রায়হান আলী।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশনের নামে শহীদ আল বোখারীর মাসিক বেতনভুক্ত প্রায় এক হাজার সন্ত্রাস বাহিনী কেয়াজুপাড়া, লামা ও ডলুছড়ি এলাকায় রয়েছে। তাদের সবার বিরুদ্ধে মামলাও রয়েছে। মাঝে মধ্যে কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশনের সন্ত্রাসীরা প্রকাশ্যে দেশীয় অস্ত্ৰ-শস্ত্র নিয়ে মহড়া দেয়। আমাদের ও সাধারণ মানুষের মধ্যে ভয়ভীতি সৃষ্টি করে।

ভুক্তভোগীরা অভিযোগ করে বলেন, আমরা কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশন কর্তৃক বিভিন্ন সময়ে বিভিন্নভাবে নির্যাতন, জমি দখল ও হুমকির সম্মুখীন হয়েছি। যে কারণে আমরা ভুক্তভোগী পরিবারের পক্ষে মো. খলিলুর রহমান বাদী হয়ে ২০২০ সালের ২০ ফেব্রুয়ারি শহীদ আল বোখারীর নামে একাধিক মামলা করেন। অন্যদিকে ২০১৮ সালের ২৩ অক্টোবর মো. নাছির উদ্দীন বাদী হয়ে মামলা করেন। এছাড়া পাহাড় কাটাসহ শহীদ আল বোখারীর বিরুদ্ধে আরও কয়েকটি মামলা রয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে আরও বলা হয়, লামা উপজেলার, ডলুছড়ি মৌজায় সরকার থেকে কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান শহীদ আল বোখারী কয়েক হাজার একর সরকারি জমি নামে-বেনামে দখল করে নিয়েছে। এমনকি মাসিক বেতনভুক্ত কিছু কর্মকর্তার মাধ্যমেও সরকারি ও সাধারণ মানুষের ভূমি দখলের রাজত্ব এখন শহীদ আল বোখারীর নিয়ন্ত্রণে। ডলুছড়ি এলাকায় শহীদ আল বোখারীর জমির পাশেই রয়েছে মসজিদ, মাদরাসা ও কবরস্থানের জমি। সেসব জমিও দখল করার জন্য প্রায় দুই বছর ধরে মাদরাসা ও মসজিদ কমিটিকে বিভিন্ন সময়ে বিভিন্নভাবে হুমকি দিয়ে যাচ্ছেন।

সংবাদ সম্মেলনে শহীদ আল বোখারীকে গ্রেফতার ও বিচার দাবি জানান ভুক্তভোগীরা।

এমআইএস/আরএডি/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]