ড্রোন দিয়ে মশার উৎস খুঁজতে ডিএনসিসিতে দশ দিনব্যাপী অভিযান শুরু

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:৫৭ এএম, ০৩ জুলাই ২০২২

ড্রোনের মাধ্যমে মশার উৎস খুঁজতে দশ দিনব্যাপী চিরুনি অভিযান শুরু করেছে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি)। শনিবার (২ জুলাই) থেকে শুরু হওয়া এই অভিযান চলবে আগামী ১১ জুলাই পর্যন্ত।

শনিবার সকাল থেকে ডিএনসিসির অঞ্চল-১, অঞ্চল-৩ ও অঞ্চল-৫ এ ড্রোনের সাহায্যে বিভিন্ন বাসাবাড়ির ছাদবাগান, ছাদে জমা পানি, চৌবাচ্চা এবং বৃষ্টির পানি বা পরিষ্কার পানি জমতে পারে এ ধরনের স্থান এবং পাত্র সার্ভে করা হয়।

অঞ্চল-১ এর অধীন উত্তরা সেক্টর-৪ এলাকায় মোট ৩২২টি বাড়িতে ড্রোন সার্ভে করা হয়। ১৮টি ছাদবাগান সার্ভে করে ৫টিতে জমা পানি পাওয়া গেছে এবং ১টি বাড়ির ছাদে এডিসের লার্ভা পাওয়া গেছে। এতে ওই বাড়ির মালিককে সাবধান করে দেওয়া হয়েছে।

অঞ্চল-৩ এর অধীন এলাকায় মোট ২৯১টি বাড়িতে ড্রোন সার্ভে করা হয়। ২৫টি ছাদবাগান সার্ভে করে ৩টিতে জমা পানি পাওয়া গেছে তবে লার্ভা পাওয়া যায়নি।

এছাড়া অঞ্চল-৫ এর অধীন লালমাটিয়া এলাকায় মোট ২৬৭টি বাড়িতে ড্রোন সার্ভে করা হয়। ১২টি ছাদবাগান সার্ভে করে ৪টিতে জমা পানি পাওয়া গেছে তবে লার্ভা পাওয়া যায়নি।

ডিএনসিসির প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল জোবায়দুর রহমান অঞ্চল-৩ ও ৫ এর ড্রোনের সাহায্যে পরিচালিত সার্ভে কার্যক্রম পরিদর্শন করেন। এছাড়া স্বাস্থ্য কর্মকর্তা মো. ইমদাদুল হক অঞ্চল-৫ এলাকায় সার্ভে কার্যক্রম পরিচালনার সময়ে উপস্থিত ছিলেন।

বৃহস্পতিবার (৩০ জুন) সকালে রাজধানীর উত্তরা সেক্টর-৪ এলাকায় ড্রোনের মাধ্যমে মশার উৎস শনাক্তকরণ কার্যক্রম পরিদর্শনে এসে মশার উৎস খুঁজতে দশ দিনব্যাপী ড্রোনের মাধ্যমে চিরুনি অভিযানের ঘোষণা দেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম।

এমএমএ/এমএইচআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]