ঢাকায় বৃষ্টি, অন্যান্য স্থানেও বাড়তে পারে

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১২:২২ পিএম, ০৩ জুলাই ২০২২

কয়েকদিন পর ঢাকায় ফের বৃষ্টির দেখা মিললো। দিনের প্রথম ভাগের এ বৃষ্টি, নগর জীবনে এনেছে প্রশান্তি। দেশের অন্যান্য জায়গায়ও এ বৃষ্টি বাড়তে পারে বলে জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদরা।

গত কয়েকদিন ধরে ঢাকায় বৃষ্টি না থাকায় ভ্যাপসা গরম অনেকটাই বেড়ে গিয়েছিল। রোববার সকাল থেকেই ঢাকায় রোদ ছিলো। তবে বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বাড়তে থাকে মেঘের আনাগোনা। পরে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে শুরু হয় বৃষ্টি। এরপর থেমে থেমে বৃষ্টি হচ্ছিলো।

আগামী তিনদিন বৃষ্টিপাতের এ প্রবণতা অব্যাহত থাকতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

শনিবার সকাল ৬টা থেকে রোববার সকাল ৬টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় ময়মনসিংহ ও রাজশাহী ছাড়া মোটামুটি সব বিভাগেই কম-বেশি বৃষ্টি হয়েছে। রংপুর ও সিলেট অঞ্চলে ভারি বৃষ্টিপাতের প্রবণতা অনেকটাই কমে গেছে। শনিবার দেশে সর্বোচ্চ ৩৮ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে পঞ্চগড়ের তেতুলিয়ায়।

আবহাওয়াবিদ খো. হাফিজুর রহমান জানান, রোববার সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টায় খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায় এবং রংপুর, রাজশাহী, ঢাকা ও ময়মনসিংহ বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেইসঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারি থেকে ভারি বৃষ্টি হতে পারে।

এ সময়ে সারাদেশে দিন ও রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে জানিয়ে তিনি বলেন, মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশের ওপর মোটামুটি সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরের অন্যত্র মাঝারি অবস্থায় রয়েছে।

শনিবার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৬ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছিলো রাজশাহীতে। ঢাকায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিলো ৩৪ দশমিক ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

রোববার সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত দেশের অভ্যন্তরীণ নদীবন্দরগুলোর জন্য আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, পাবনা, ঢাকা, ফরিদপুর, যশোর, কুষ্টিয়া, খুলনা, বরিশাল, পটুয়াখালী, নোয়াখালী, কুমিল্লা, চট্টগ্রাম, কক্সবাজার এবং সিলেট অঞ্চলসমূহের ওপর দিয়ে দক্ষিণ বা দক্ষিণ-পূর্ব দিক থেকে ঘণ্টায় ৪৫ থেকে ৬০ কিলোমিটার বেগে অস্থায়ীভাবে দমকা বা ঝোড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে।

এসব এলাকার নদীবন্দরগুলোকে ১ নম্বর সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

আরএমএম/এমপি/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]