চেয়ারম্যানকে মারধর

জনপ্রতিনিধি ও রাজনীতিকদের মর্যাদা ভূলুণ্ঠিত হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৯:২৫ পিএম, ২৪ জুলাই ২০২২

কুমিল্লার দেবিদ্বারে উপজেলা চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদকে মারধরের ঘটনায় কুমিল্লা-৪ আসনের সংসদ সদস্য রাজি মোহাম্মদ ফখরুলের শাস্তি দাবি করেছে বাংলাদেশ উপজেলা পরিষদ অ্যাসোসিয়েশন। এ ঘটনায় জনপ্রতিনিধি ও রাজনীতিকদের মর্যাদা ভূলুণ্ঠিত হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন তারা।

আগামী মাস শেষ হওয়ার আগেই তারা দোষী ব্যক্তির দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চান। বিচার না হলে উপজেলা চেয়ারম্যান-ভাইস চেয়ারম্যানরা একযোগে পদত্যাগ করবেন বলে ঘোষণা দিয়েছে সংগঠনটি।

রোববার (২৪ জুলাই) ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে কুমিল্লার দেবিদ্বারে এ ঘটনার বিচারের দাবিতে সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ উপজেলা পরিষদ অ্যাসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে সংগঠনের সভাপতি হারুন-অর রশীদ হাওলাদার এসব কথা বলেন। ।

হারুন-অর রশীদ বলেন, বেঁধে দেওয়া সময়ের মধ্যে দৃষ্টান্তমূলক বিচার না হলে কয়েকটি শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি পালন করা হবে। ২ সেপ্টেম্বর জাতীয় সংসদ ভবনে স্পিকার বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করা হবে। রাজি মোহাম্মদ ফখরুলের আচরণের বিরুদ্ধে প্রশাসনিক ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য ৭ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রী বরাবর আনুষ্ঠানিক আবেদন করা হবে। ১৫ সেপ্টেম্বর দেশের সব উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান, নারী ভাইস চেয়ারম্যানরা ঢাকায় সমাবেশ করবেন।

তারপরও যদি যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা না হয়, তাহলে সব উপজেলা চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান, নারী ভাইস চেয়ারম্যানরা প্রধানমন্ত্রী ও নিজ নিজ এলাকার জনগণকে অবহিত করে একযোগে পদত্যাগ করতে বাধ্য হবেন।

তিনি বলেন, ব্যক্তি স্বার্থ ও প্রতিহিংসা চরিতার্থে আবুল কালামকে লাঞ্ছিত করা হয়েছে। এ ঘটনা সরকারকেও বিব্রত করেছে। এ ঘটনা দেশের ৪৯২টি উপজেলা পরিষদের নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিসহ সব জনপ্রতিনিধিদের আহত করেছে।

তিনি আরও বলেন, রাজি মোহাম্মদ ফখরুল ও আবুল কালাম আজাদ উভয়ই আওয়ামী লীগ দলীয় নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি। আবুল কালাম ইতিমধ্যে সুষ্ঠু বিচার চেয়ে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী বরাবর আবেদন করেছেন। সাংগঠনিক শৃঙ্খলা ভঙ্গের দায়ে দল ব্যবস্থা গ্রহণ করবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।

সংবাদ সম্মেলনের শেষ দিকে আবুল কালাম আজাদ মুঠোফোনে সংযুক্ত হয়ে সাংবাদিকদের বলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির সভায় রাজি মোহাম্মদ ফখরুল তাকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করেন।

সংবাদ সম্মেলনে সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম খান বীরু ও বিভিন্ন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান, নারী ভাইস চেয়ারম্যানসহ সংগঠনের কেন্দ্রীয়, বিভাগীয়, জেলার নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

এএএম/এমএইচআর/জিকেএস

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।