পুনর্নির্বাচনের দাবি দোহার পৌর নির্বাচনে পরাজিত মেয়র প্রার্থীদের

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫:৩৪ পিএম, ৩১ জুলাই ২০২২
দোহার পৌর নির্বাচনে পরাজিত মেয়র প্রার্থীদের সংবাদ সম্মেলন

দোহার পৌর নির্বাচনে প্রিজাইডিং কর্মকর্তাদের অসহযোগিতার অভিযোগ তুলে বেসরকারি ফলাফল স্থগিত করে পুনর্নির্বাচনের দাবি জানিয়েছেন পরাজিত মেয়রপ্রার্থীরা। রোববার (৩১ জুলাই) জাতীয় প্রেস ক্লাবে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি জানান তারা।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে পরাজিত মেয়রপ্রার্থী মো. নজরুল ইসলাম বলেন, নির্বাচনের আগে দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তারা বলেছিলেন, প্রতিটি কেন্দ্রে ভোট গণনার সময় প্রতি প্রার্থীর পক্ষ থেকে একজন করে এজেন্ট উপস্থিতি থাকবেন।

‘ভোট গণনা শেষে প্রিন্টেড সিলমোহর দেওয়া সইযুক্ত ইভিএম রেজাল্টের অনুলিপি এজেন্টের কাছে হস্তান্তর করা হবে। কিন্তু, ফলাফলের অনুলিপি হস্তান্তর তো দূরের কথা, আমাদের এজেন্টদের ভোট গণনার সময় ভোটকেন্দ্রে থাকতে দেওয়া হয়নি। এমনকি, ভোট গ্রহণ শেষে আমাদের এজেন্টদের কেন্দ্র থেকে বের করে দেওয়া হয়েছে।’

তিনি বলেন, ফলাফলের মূল অনুলিপি ছাপিয়ে হস্তান্তরের বদলে প্রিজাইডিং কর্মকর্তাদের হস্তলিখিত অনুলিপি সরবরাহ করা হয়েছে। কোনো কোনো কেন্দ্রে ছাপানো অনুলিপি দেওয়া হলেও তাতে সই ও সিলমোহর ছিল না।

jagonews24

নির্বাচনে যা যা ঘটেছে তা সম্পূর্ণ নিয়ম বহির্ভূত। এসব ঘটনার ফলে নির্বাচনের ফলাফল বিশ্বাসযোগ্যতা হারিয়েছে ও কারচুপির আশংকাকে স্পষ্ট করেছে।

মো. নজরুল ইসলাম আরও বলেন, ‘নির্বাচন নিয়ে একটি সুস্পষ্ট অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে আমরা প্রধান নির্বাচন কমিশনারের কাছে পুনর্নির্বাচনের আবেদন করছি।

সংবাদ সম্মেলনে পরাজিত মেয়র প্রার্থীদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- হেলমেট প্রতীকের মো. নজরুল ইসলাম, চামচ প্রতীকের মো. জাহাঙ্গীর আলম, ইস্ত্রি প্রতীকের মো. নূরুল ইসলাম, মোবাইল ফোন প্রতীকের জামাল উদ্দিন আহমেদ ও নারিকেল গাছ প্রতীকের আব্দুর রহমান আকন্দ।

এমআইএস/এসএএইচ/জিকেএস

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।