গরমে স্বস্তি পেতেই হাতিরঝিলে মানুষের ভিড়

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫:০২ এএম, ০৬ আগস্ট ২০২২
ছুটির দিনে হাতিরঝিলে মানুষের ভিড়

কয়েকদিন ধরেই তীব্র গরম। দিনভর প্রখর রোদে বাসায় থাকতেও যেখানে অস্বস্তিতে পড়তে হয়, সেখানে এখন চলছে লোডশেডিং। এ অবস্থায় কর্মব্যস্ত রাজধানীতে তাই কিছুটা স্বস্তি পেতে হাতিরঝিলে ভিড় করছেন বিভিন্ন বয়সী মানুষ।

শুক্রবার (৫ আগস্ট) সন্ধ্যায় রাজধানীর হাতিরঝিলে গিয়ে এমন চিত্র দেখা যায়।

এদিন কেউ পরিবার নিয়ে, কেউ বন্ধু-বান্ধব নিয়ে, কেউ আবার একাই এসেছেন হাতিরঝিলে ঘুরতে। কেউ আবার সন্ধ্যায় হাতিরঝিলের সৌন্দর্য উপভোগের পাশাপাশি কিছুটা সময় অতিবাহিত করতেই এসেছেন। সন্ধ্যায় ঝিলের পানিতে বয়ে চলা ওয়াটার বাসের ছোট ঢেউয়ের সঙ্গে মৃদু বাতাসে এক অন্যরকম পরিবেশ তৈরি করে শব্দদূষণ, বায়ুদূষণ ও জ্যামের নগরীতে। তীব্র গরমের সঙ্গে লোডশেডিংয়ের নতুন অস্বস্তি চারদেয়ালে রেখে সন্ধ্যা নামতেই তাই রাজধানীর এমন প্রকৃতি দেখতে ভিড় করছেন অনেক মানুষ। ‌

jagonews24

কেউ ব্রিজের রেলিংয়ে হেলান দিয়ে, কেউ রাস্তার পাশে থাকা বেঞ্চে বসে বিশ্রামের পাশাপাশি প্রকৃতির সৌন্দর্য উপভোগ করছেন।‌ কেউ বাচ্চাদের নিয়ে এসেছেন। ঘুরতে আসা শিশুরা মনের আনন্দে খেলা করছে।‌ কেউ আবার বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডা দিয়ে সময় পার করছেন। তীব্র গরমে স্বস্তিতে সময় কাটাতেই ছুটির দিনে ঘুরতে বেরিয়েছেন বলে জানান অনেকে।

স্ত্রী-সন্তান নিয়ে রাজধানীর দক্ষিণ বাড্ডা থেকে হাতিরঝিলে ঘুরতে আসেন মো. আব্দুল করিম।‌ তিনি জাগো নিউজকে বলেন, সারাদিন বাচ্চারা বাসায় থাকে। কয়েকদিন ধরে বেশ গরম পড়েছে। মাঝে মাঝে আবার লোডশেডিংও থাকে। তাই আজ ছুটির দিনে পরিবারের সবাইকে নিয়ে বের হলাম।

দক্ষিণ বাড্ডা থেকে আসা শাহাদাত হোসেন শান্ত জাগো নিউজকে বলেন, প্রতিদিন সন্ধ্যায় হাতিরঝিলে একাই একটু ঘুরতে আসি। গরম আর সারাদিন কাজ করে সন্ধ্যায় একটু খোলামেলা পরিবেশে হাঁটতে বেশ ভালো লাগে।

মোসা. রিনা আক্তার নামের এক নারী জাগো নিউজকে বলেন, সন্ধ্যায় হাতিরঝিলের পরিবেশটা বেশ‌ ভালো লাগে।‌ দিনে অনেক গরম তাই সন্ধ্যায় আসি কিছুটা স্বস্তি পেতে। পরিবারের সবাই একসঙ্গে এসেছি ঘুরতে।

jagonews24

শুধু পরিবার-পরিজন নিয়েই নয়। অনেক শিক্ষার্থীও আসেন রাজধানীর এই খোলা পরিবেশে হাতিরঝিলের সৌন্দর্য উপভোগ করতে। তিতুমীর সরকারি কলেজের শিক্ষার্থী মো. শাফিন জাগো নিউজকে বলেন, এমনিতে কম আসা হয় হাতিরঝিলে। গ্রাম থেকে এক অতিথি এসেছে।‌ তাই তাকে নিয়ে ঘুরতে আসলাম হাতিরঝিলে।‌ গরমের দিনে খোলামেলা পরিবেশ ভালোই লাগছে।

এদিকে হাতিরঝিলে পুলিশ প্লাজার পেছনের পার্কে গিয়ে দেখা যায়, প্রায় শতাধিক মানুষ। সেখানে হাফিজ নামে একজন জাগো নিউজকে বলেন, এখানে বিকেল হলেই আসি। প্রতিদিন কয়েকশ মানুষ আসেন সময় কাটাতে।‌

পার্কটির নিরাপত্তাকর্মী জিয়াউর রহমান জাগো নিউজকে বলেন, আগে এতো মানুষ হতো না এখানে। ছোট জায়গা অথচ এখন সন্ধ্যা হলেই অনেক মানুষ এখানে ঘুরতে আসেন।

আরএসএম/ইএ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]