মতিঝিলে পেট্রলপাম্পকে আড়াই লাখ টাকা জরিমানা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৭:৩৯ পিএম, ০৬ আগস্ট ২০২২
রাজধানীর মতিঝিলে করিম অ্যান্ড সন্স পেট্রোল পাম্পে ভোক্তা অধিদপ্তরের অভিযান

রাজধানীর মতিঝিলে পরিমাপে কারচুপি করার অপরাধে করিম অ্যান্ড সন্স নামের একটি পেট্রলপাম্পকে ২ লাখ ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। শনিবার (৬ আগস্ট) জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর এ জরিমান করে।

ভোক্তা অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, শনিবার রাজধানীর বিভিন্ন পেট্রলপাম্পে অভিযান চালানো হয়। অভিযান পরিচালনা করেন ঢাকা জেলা কার্যালয়ের অফিস প্রধান মো. আব্দুল জব্বার মণ্ডল, ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মো. মাগফুর রহমান ও সহকারী পরিচালক মাহমুদা আক্তার।

অভিযান পরিচালনাকালে মতিঝিলের করিম অ্যান্ড সন্স পেট্রলপাম্পের দুটি অকটেন পরিমাপযন্ত্রে কারচুপির প্রমাণ পাওয়া যায়। একটি প্রতি পাঁচ লিটার অকটেনে ৫৪০ মিলিলিটার ও অপরটিতে ৪৯০ মিলিলিটার অকটেন কম পাওয়া যায়।

অধিদপ্তর জানায়, অকটেনের পরিমাপে কারচুপি ও বর্ধিত দামে অকটেন-ডিজেল বিক্রির উদ্দেশ্যে শুক্রবার (৫ আগস্ট) রাত ১২টার আগেই পেট্রলপাম্প বন্ধ রাখার অপরাধে প্রতিষ্ঠানটিকে ২ লাখ ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

jagonews24

একই সঙ্গে ত্রুটিযুক্ত পরিমাপযন্ত্র দুটি থেকে অকটেন বিক্রি জনস্বার্থে সাময়িকভাবে বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়। এসময় পাম্পের মালিক ও কর্মচারীরা স্বেচ্ছায় দোষ স্বীকার করে জরিমানা পরিশোধ করেন ও সবার উপস্থিতিতে যন্ত্র দুটি ঠিক করার অঙ্গীকার করেন। পাশাপাশি ভবিষ্যতে তারা আর এ ধরনের কাজ করবে না বলে প্রতিজ্ঞা করেন।

এর আগে রমনা ফিলিং স্টেশনে তদারকি করে মেয়াদোত্তীর্ণ ট্রেড লাইসেন্স পাওয়া গেলেও বিস্ফোরক পরিদপ্তর, ফায়ার সার্ভিসসহ অন্যান্য প্রয়োজনীয় লাইসেন্স দেখাতে ব্যর্থ হয়। ফিলিং স্টেশনটিতে ২৭ হাজার ৬২৩ লিটার অকটেনের মজুত পাওয়া গেলেও বিনা নোটিশে শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টা থেকে সেটি বন্ধ রাখার প্রমাণ পাওয়া যায়।

প্রতিষ্ঠানটির প্রবেশদ্বারে ‘ভিআইপি চলাচলে নিরাপত্তার স্বার্থে সাময়িকভাবে তেল বিক্রয় বন্ধ’ লেখা সাইনবোর্ড টানানোর প্রমাণ মেলে। তবে কোনো ভিআইপি চলাচল করেছেন কি না ও সরকারের কোনো সংস্থা এ ধরনের অনুরোধ/ নির্দেশনা দিয়েছে কি না তার সদুত্তর দিতে পারেনি রমনা ফিলিং স্টেশনে কর্তৃপক্ষ।

প্রয়োজনীয় কাগজপত্রসহ বিষয়গুলোর ব্যাখ্যা করার জন্য রোববার (৭ আগস্ট) সকাল সাড়ে ৯টায় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের প্রধান কার্যালয়ে সশরীরে উপস্থিত হওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

ইএআর/এসএএইচ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]