তাজিয়া মিছিল

আজিমপুর-নিউমার্কেট এলাকায় যানজট

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০২:২৬ পিএম, ০৯ আগস্ট ২০২২
রাজধানীর বেশকিছু সড়কে তীব্র যানজট

পবিত্র আশুরা উপলক্ষে আজ সরকারি ছুটির দিন। তবে এদিনও রাজধানীর বেশকিছু সড়কে তীব্র যানজটে পড়তে হয়েছে নগরবাসীকে। তাজিয়া মিছিলের কারণে কিছু কিছু সড়ক বন্ধ থাকার ফলে অন্য সড়কগুলোতে যানবাহনের চাপ পড়েছে। এতে তীব্র জ্যামের সৃষ্টি হয়।

মঙ্গলবার (৯ আগস্ট) রাজধানীর হোসনি দালান ইমামবাড়া, বড় কাটারা ইমামবাড়া ও এর আশপাশের শিয়া সম্প্রদায় কেন্দ্রিক বিভিন্ন অনুষ্ঠান ও ঐতিহ্যবাহী তাজিয়া (শোক) মিছিলে হাজারো মানুষ অংশ নেন। মিছিলকে ঘিরে পুরান ঢাকার লালবাগ, চকবাজার, আজিমপুর, নীলক্ষেত, নিউমার্কেটে তীব্র যানজট দেখা যায়।

হোসানি দালান ইমামবাড়া থেকে সকাল ১০টায় তাজিয়া মিছিল বের হয়। এসময় চকবাজার, লালবাগ এলাকার বেশ কিছু রাস্তা বন্ধ করে দেওয়া হয়। আজিমপুর থেকে সাইন্সল্যাব পর্যন্ত রাস্তা বন্ধ করে দেওয়া। দুপুর ১টা নাগাদ মিছিলটি যখন চলছিল তখনও অপরপাশে সাইন্সল্যাব থেকে নীলক্ষেত পর্যন্ত পুরো রাস্তাতেই ছিল তীব্র জ্যাম।

শুক্রাবাদ থেকে আসা রফিক নামের এক বাসযাত্রী জাগো নিউজকে বলেন, সাইন্সল্যাবে এসে আধঘণ্টা গাড়ি একটুও এগোয়নি। নিউমার্কেটের সামনে তীব্র জ্যাম। নীলক্ষেত পর্যন্ত আসতেই ১ ঘণ্টা লেগে গেছে।

ছুটির দিনেও রাজধানীতে তীব্র যানজট

পাশের আরেক যাত্রী বলেন, সাইন্সল্যাব থেকে জ্যামটা বেশি। আজিমপুরের দিকে গাড়ি যাচ্ছিই না।

নিউমার্কেটে শুভযাত্রা পরিবহনের একটি বাসের চালকের সহকারী মাহবুব জাগো নিউজকে বলেন, রাস্তায় অনেক জ্যাম। সাইন্সল্যাবে এসে গাড়ি চলেই না। আজিমপুরের রাস্তাও বন্ধ। অন্য রাস্তা দিয়ে যেতে হবে।

সারাদেশে পালিত হচ্ছে পবিত্র আশুরা। আশুরা উপলক্ষে রাজধানীর হোসনি দালান ইমামবাড়া, বড় কাটারা ইমামবাড়া ও এর আশপাশের শিয়া সম্প্রদায় কেন্দ্রিক বিভিন্ন অনুষ্ঠান ও ঐতিহ্যবাহী তাজিয়া মিছিলকে ঘিরে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। এসব আয়োজনে নিরাপত্তা নিশ্চিতে কাজ করছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি)।

এদিকে সুষ্ঠুভাবে তাজিয়া মিছিল সম্পন্ন করতে দা, ছুরি, কাঁচি, বর্শা, বল্লম, তরবারি, লাঠি বহন নিষিদ্ধ করেছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। একই সঙ্গে আতশবাজি ও পটকা ফোটানো নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

আরএসএম/ইএ/জেআইএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।