র‍্যাবের এয়ার উইং পরিচালকের নিথর দেহ ঢাকায়

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১২:৪৮ এএম, ১১ আগস্ট ২০২২

হেলিকপ্টার দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হয়ে সিঙ্গাপুরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যাওয়া র‍্যাবের এয়ার উইংয়ের পরিচালক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মোহাম্মদ ইসমাইল হোসেনের নিথর মরদেহ ঢাকায় পৌঁছেছে।

বুধবার (১০ আগস্ট) সন্ধ্যা ৭টার পরে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর এসে পৌঁছায় এই র‌্যাব কর্মকর্তার মরদেহ।

র‍্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের সহকারী পরিচালক সিনিয়র এএসপি আ ন ম ইমরান খান রাতে জাগো নিউজকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, সিঙ্গাপুর থেকে বুধবার সন্ধ্যা ৭টার পরে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর এসে পৌঁছায় র‍্যাবের এয়ার উইংয়ের পরিচালক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মোহাম্মদ ইসমাইল হোসেনের মরদেহ। তার মরদেহ গ্রহণ করেন র‍্যাবের মহাপরিচালক অতিরিক্ত আইজিপি চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন। এসময় হৃদয়বিদারক দৃশ্যের অবতারণা হয়।

jagonews24

মরদেহ গ্রহনের সময় বিমানবন্দরে উপস্থিত ছিলেন র‍্যাবের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (অপারেশনস্) কর্নেল মো. কামরুল হাসান, অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) ডিআইজি ইমতিয়াজ আহমেদ, র‍্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন, র‍্যাবের গোয়েন্দা প্রধান লেফটেন্যান্ট কর্নেল মশিউর রহমান ও এয়ার উইংয়ের কর্মকর্তাসহ র‍্যাবের অন্য কর্মকর্তারা।

বিমানবন্দর থেকে ফ্রিজিং ভ্যানে লেফটেন্যান্ট কর্নেল মোহাম্মদ ইসমাইল হোসেনের মরদেহ নেওয়া হয় তার নিজ এলাকা রাজধানীর কালশীতে অবস্থিত বাইতুর রহমান জামে মসজিদে। সেখানে রাত ৯টায় তার প্রথম নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়।

বৃহস্পতিবার (১১ আগস্ট) বেলা ১১টায় রাজধানীর কুর্মিটোলায় র‍্যাব সদরদপ্তরে তার দ্বিতীয় জানাজা হবে।

র‍্যাব সদরদপ্তরের জানাজায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল, বাংলাদেশের পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. বেনজীর আহমেদ, র‍্যাবের মহাপরিচালক অতিরিক্ত আইজিপি চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুনসহ র‌্যাব ও পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত থাকবেন।

মরহুমের তৃতীয় নামাজে জানাজা ঢাকার সেনানিবাস কেন্দ্রীয় মসজিদ প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত হবে। এরপর তার মরদেহ বনানীর সামরিক কবরস্থানে দাফন করা হবে।

jagonews24

এর আগে র‍্যাবের লিগ্যাল আ্যন্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন জানিয়েছিলেন, গত ২৭ জুলাই ঢাকার নবাবগঞ্জ এলাকায় বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর প্রশিক্ষণকালে একটি হেলিকপ্টার যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে দুর্ঘটনায় পতিত হয়। পরে ঘটনাস্থল থেকে র‍্যাবের এয়ার উইংয়ের পরিচালক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মোহাম্মদ ইসমাইল হোসেনকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে দ্রুত ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) ভর্তি করা হয়। সেখান থেকেই তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য পাঠানো হয় সিঙ্গাপুরে।

গত ৬ আগস্ট র‍্যাবের এয়ার উইংয়ের পরিচালক লে. কর্নেল মোহাম্মদ ইসমাইল হোসেনের মেরুদণ্ডের সফল অস্ত্রোপচার সম্পন্ন হয়। কিন্তু অন্যান্য শারীরিক জটিলতার কারণে তার অবস্থার অবনতি হয়। স্থানীয় সময় গত মঙ্গলবার দুপুরে সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। তার বয়স হয়েছিল ৪৬ বছর।

কমান্ডার মঈন বলেন, তার এ অকাল মৃত্যুতে র‍্যাব ফোর্সেসে কর্মরত সব সদস্য গভীরভাবে শোকাহত ও মর্মাহত। তার মৃত্যুতে দেশ একজন অত্যন্ত দক্ষ পাইলট এবং চৌকস সেনা কর্মকর্তাকে হারালো। তিনি বাবা-মা, স্ত্রী ও দুই পুত্রসন্তানসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

টিটি/এমকেআর

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।