অবৈধ সম্পদ: ইন্টারন্যাশনাল লিজিংয়ের রাশেদুলের বিরুদ্ধে মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮:৩৪ পিএম, ১১ আগস্ট ২০২২

অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে ইন্টারন্যাশনাল লিজিং অ্যান্ড ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসেস লিমিটেডের (আইএলএফএসএল) ব্যবস্থাপনা পরিচালক রাশেদুল হকের বিরুদ্ধে মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। তার বিরুদ্ধে ৫৫ লাখ ২ হাজার ৩২ টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগ করেছে দুদক।

বৃহস্পতিবার (১১ আগস্ট) দুদকের প্রধান কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মো. রুহুল আমিন বাদী হয়ে দুদক সজেকা ঢাকা-১-এ মামলাটি দায়ের করেন। অবৈধ সম্পদ অর্জন ও সম্পদ বিবরণীতে মিথ্যা তথ্য দেওয়ায় দুদক আইন ২০০৪ এর ২৬(২) ও ২৭(১) ধারায় তার বিরুদ্ধে এ মামলা করা হয়েছে।

আইএলএফএসএল থেকে আলোচিত প্রশান্ত কুমার হালদারের (পি কে হালদার) আড়াই হাজার কোটি টাকা লুটপাটের ঘটনায় এরই মধ্যে রাশেদুল হকসহ বেশ কয়েকজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে দুদক।

প্রায় তিন হাজার কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে চলতি বছরের জানুয়ারিতে পি কে হালদার সংশ্লিষ্ট পাঁচটি প্রতিষ্ঠানের ৩৩ জনের বিরুদ্ধে মামলা করে দুদক। মামলায় আইএলএফএসএলের সাবেক চেয়ারম্যান এম এ হাশেম, সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মো রাশেদুল হক, ৯ জন বোর্ড সদস্য, পিপলস লিজিংয়ের চেয়ারম্যান উজ্জ্বল কুমার নন্দী, পি কে হালদারের আত্মীয় ও সহযোগীসহ মোট ৩৩ জনকে আসামি করা হয়।

এছাড়া পি কে হালদারের সহযোগীদের অর্থ লোপাটের বিষয়ে ইন্টারন্যাশনাল লিজিং অ্যান্ড ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসেসের ৮৩ জনের ব্যাংক হিসাব ফ্রিজ করা হয়েছে। এর মধ্যে ৬২ জনের হিসাবে এক হাজার ৫৭ কোটি ৮০ লাখ টাকা ফ্রিজ অবস্থায় আছে। ইন্টারন্যাশনাল লিজিংয়ের এমডি, সিএফও-সহ ১০ জনের বিদেশযাত্রা বন্ধে ইমিগ্রেশনে চিঠিও দেওয়া হয়।

এসএম/কেএসআর/এএসএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।