সন্দ্বীপে গৃহবধূ খুন, স্বামী গ্রেফতার

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক চট্টগ্রাম
প্রকাশিত: ০৮:৫৪ পিএম, ১১ আগস্ট ২০২২
প্রতীকী ছবি

চট্টগ্রামের দ্বীপ উপজেলা সন্দ্বীপে গৃহবধূ রাশেদা বেগম (২১) হত্যা মামলায় স্বামী জিহাদকে (২৭) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার (১১ আগস্ট) দুপুরে তাকে গাছুয়া ফেরিঘাট এলাকার কেওড়া বাগান থেকে গ্রেফতার করা হয় বলে জানায় পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, বুধবার (১০ আগস্ট) দিনগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে রহমতপুর ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের জসিম উদ্দিনের বাড়িতে খুন হন রাশেদা বেগম। এ ঘটনায় রাশেদার বোন পারভীন আকতার বাদী হয়ে সন্দ্বীপ থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।

পারভীন আকতার জানান, বিয়ের পর থেকেই রাশেদাকে নির্যাতন করতেন স্বামী জিহাদ। স্বামীর নির্যাতনে অতিষ্ঠ হয়ে একমাত্র ছেলেকে নিয়ে রাশেদা বাবার বাড়িতে থাকা শুরু করেন। গত আড়াই বছর ধরে তারা আলাদা বসবাস করে আসছিলেন।

বিভিন্ন সময় জিহাদ রাশেদাকে নিজের বাড়ি নিয়ে যাওয়ার জন্য চেষ্টা করেন। এজন্য বেশ কয়েকবার সালিশ-বৈঠক হয়। কিন্তু জিহাদ তার পক্ষে কোনো অভিভাবক উপস্থিত করতে না পারায় রাশেদাকে তার কাছে তুলে দেওয়া হয়নি।

পারভীন আকতার আরও বলেন, অন্যদিনের মতো বুধবার রাতেও ছেলেকে নিয়ে ঘুমাতে যায় আমার বোন। রাত সাড়ে ১২টার দিকে ওর চিৎকার শুনে ঘরের কাছে গিয়ে দেখি, দরজা দিয়ে রক্ত গড়িয়ে আসছে। দ্রুত ঘরের দরজা খুলে আমার বোনকে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখি।

‘তাড়াতাড়ি করে স্থানীয় হাসপাতালে নেওয়ার পথে রাশেদার মৃত্যু হয়। মারা যাওয়ার আগ মুহূর্তে ও আমাদের জানায়, জিহাদ ওকে ছুরি দিয়ে জবাই করতে চেয়েছিলেন। ওর ঘরে আমরা একটা ছুরি, কিছু টাকা ও জিহাদের একজোড়া জুতা পেয়েছি।’

রহমতপুর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) সদস্য ওমর শরীফ বলেন, বুধবার রাতের যে কোনো সময়ে রাশেদার স্বামী জিহাদ গোপনে শ্বশুর বাড়িতে আসেন। রাত সাড়ে ১২টার দিকে তিনি রাশেদার ঘাড়, গলা ও গালের ডানপাশে ছুরি দিয়ে তিনটি আঘাত করে পালিয়ে যান।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা, সন্দ্বীপ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) জসীম উদ্দিন জাগো নিউজকে বলেন, গৃহবধূ রাশেদা হত্যা মামলার প্রধান আসামি জিহাদকে গ্রেফতার করা হয়েছে। শুক্রবার (১২ আগস্ট) তাকে আদালতে হাজির করানো হবে।

ইকবাল হোসেন/এসএএইচ/এএসএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।