জিল্লুর ভাণ্ডারী হত্যা: ৭ বছর পর সাজাপ্রাপ্ত আসামি গ্রেফতার

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬:১৫ পিএম, ১৪ আগস্ট ২০২২

চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়ার আলোচিত ও চাঞ্চল্যকর জিল্লুর ভাণ্ডারী হত্যা মামলার প্রায় সাড়ে ৭ বছর পর যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামি মো. তোতা মিয়াকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব।

রোববার (১৪ আগস্ট) ভোররাতে ঢাকা মহানগরীর তুরাগ থানার কামারপাড়া এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতার তোতা মিয়া রাঙ্গুনিয়ার বাইশ্যার ডেবা এলাকার আবু সালেহ ওরফে বইল্যার ছেলে।

র‍্যাব সূত্রে জানা গেছে, ২০১৫ সালের ২১ জানুয়ারি রাঙ্গুনিয়া থানার রানীরহাট প্রাথমিক বিদ্যালয় গেটের সামনে জিল্লুর ভাণ্ডারীকে দুষ্কৃতিকারীরা গুলি করে হত্যা করে। এ ঘটনায় নিহতের ছোট ভাই মোহাম্মদ আজিম উদ্দিন বাদী হয়ে ৮ জন এজাহারনামীয় এবং ৪-৫ অজ্ঞাতনামা করে হত্যা মামলা দায়ের করে। ঘটনার পর গ্রেফতার হলেও পরে জামিন নিয়ে লাপাত্তা হয়ে যান। এরই মধ্যে চলতি বছরের ১৫ ফেব্রুয়ারি ওই মামলার রায়ে দুই আসামীকে মৃত্যুদণ্ড ও ছয় জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেন আদালত।

র‍্যাব-৭ এর সিনিয়র সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) মো. নূরুল আবছার জাগো নিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, রাঙ্গুনিয়া জিল্লুর ভাণ্ডারী হত্যা মামলায় যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামী তোতা মিয়া ঘটনার পর থেকে পলাতক ছিলেন। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আজ ভোর সোয়া ৪টার দিকে তোতা মিয়াকে ঢাকার তুরাগ থানা এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারের পর সে যাবজ্জীবন দণ্ডিত আসামী বলে স্বীকার করেন। রোববার সকালে তাকে রাঙ্গুনিয়া থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

ইকবাল হোসেন/জেএস/জিকেএস

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।