রাজশাহীতে খুন করে চট্টগ্রামে আত্মগোপন, বাবা-মা-ছেলে গ্রেফতার

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক চট্টগ্রাম
প্রকাশিত: ০৯:০৯ পিএম, ১৪ আগস্ট ২০২২

উচ্চ শব্দে গান বাজাতে নিষেধ করায় প্রতিবেশীকে খুন করে চট্টগ্রামে আত্মগোপনে থাকা এক পরিবারের বাবা-মা ও ছেলেকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। শনিবার (১৩ আগস্ট) বিকেল ৫টার দিকে চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড থানার মাদাম বিবিরহাট ও উত্তর সলিমপুর এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। রোববার (১৪ আগস্ট) দুপুর ২টায় এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানায় র‌্যাব-৭।

গ্রেপ্তাররা হলেন, মো. নাহিদ হোসেন (২০), তার বাবা বকুল আলী (৪৫) এবং মা মেছাম্মৎ আমেনা (৪০)। গ্রেপ্তার বকুল আলী রাজশাহী জেলার শা মাখদুম থানাধীন হরিষার ডাইং গ্রামের আছের উদ্দিনের ছেলে।

র‌্যাব সূত্রে জানা গেছে, গত ১ আগস্ট দিনগত রাত সাড়ে ৯টার দিকে নাহিদ রাজশাহী জেলায় গ্রামের বাড়িতে উচ্চ শব্দে গান শুনছিলেন। তাদের প্রতিবেশী মুকুল আলীর (৪৫) মেয়ে অন্তঃসত্ত্বা হওয়ায় মুকুল আলী নাহিদকে উচ্চশব্দে গান বাজাতে নিষেধ করেন।

নাহিদ তাৎক্ষণিক শব্দ কমিয়ে দিলেও মুকুল আলী সেখান থেকে চলে যাওয়ার পর আবারও শব্দ বাড়িয়ে দেন। মুকুল আলী পুনরায় নাহিদের বাড়িতে গিয়ে উচ্চ শব্দে গান বাজাতে নিষেধ করলে নাহিদ তার বাবা বকুল আলী, মা ও তার বোন মিলে মুকুলকে গালিগালাজ করেন। এক পর্যায়ে নাহিদ ও তার পরিবারের সদস্যরা লোহার রড দিয়ে মুকুলের মাথায় আঘাত করেন। তাছাড়া চাকু দিয়ে শরীরের বিভিন্ন জায়গায় আঘাত করে গুরুতর জখম করেন।

মুকুলের চিৎকার শুনে তার ছেলে শাহীন আলম ও মেয়ে জামাই আলমগীর সেখানে গেলে তাদেরও মারধর করে এবং চাকু দিয়ে আঘাত করে। পরে স্থানীয় বাসিন্দারা মুকুলকে উদ্ধারে এগিয়ে গেলে আসামিরা পালিয়ে যান।

এরপর গুরুতর আহত মুকুলকে উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওই রাতেই তার মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় নিহত মুকুল আলীর ছেলে শামীম ইসলাম বাদী হয়ে রাজশাহী মহানগরীর শাহ মাখদুম থানায় আটজন এজাহারনামীয় এবং তিন থেকে চারজনকে অজ্ঞাতনামা আসামি করে একটি হত্যা মামলা করেন। মামলার পর পুলিশ ৫ জনকে গ্রেফতার করলেও প্রধান তিন আসামি রাজশাহী থেকে পালিয়ে আত্মগোপনে চলে যান।

র‌্যাব-৭ এর সিনিয়র সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) নূরুল আবছার বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব জানতে পারে রাজশাহীর মুকুল আলী হত্যাকাণ্ডের মূল তিন আসামি সীতাকুণ্ড এলাকায় অবস্থান করছেন। শুক্রবার বিকেল ৫টার দিকে অভিযান চালিয়ে মাদাম বিবিরহাট এবং উত্তর সলিমপুর এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। পরে তাদের শাহ মাখদুম থানা পুলিশের হাতে সোপর্দ করা হয় বলে জানান তিনি।

ইকবাল হোসেন/এমআইএইচএস

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।