দেশে ইউরিয়া সারের মজুত ৬ লাখ টন, টিএসপি তিন লাখ

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮:৪৬ পিএম, ১৮ আগস্ট ২০২২
ফাইল ছবি

দেশের বাজারে সারের সংকট তৈরি হয়েছে। আবার কোথাও কোথাও নেওয়া হচ্ছে বেশি দাম। এমন অভিযোগ কৃষকদের। এ অবস্থা বগুড়ায় বিক্ষোভও হয়েছে, যা নজরে এসেছে সরকারের।

এ বিষয়ে কৃষি মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, কৃত্রিমভাবে কেউ যাতে সারের সংকট তৈরি ও দাম বেশি নিতে না পারে- এজন্য মন্ত্রণালয় ও মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তারা তদারকি করছেন। কৃত্রিম সংকট তৈরিকারীদের শাস্তির আওতায় আনার কার্যক্রম অব্যাহত আছে বলে জানানো হয়। একই সঙ্গে মন্ত্রণালয় জানায়, দেশে পর্যাপ্ত পরিমাণে সার মজুত রয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৮ আগস্ট) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানায় কৃষি মন্ত্রণালয়। বিজ্ঞপ্তিতে সারের বর্তমান মজুত পরিস্থিতিও তুলে ধরা হয়।

এর আগে বুধবার (১৭ আগস্ট) বগুড়ায় চাহিদা অনুযায়ী ইউরিয়া সার না পেয়ে গাছের গুঁড়ি ফেলে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেন কৃষকরা। ধুনট শহরের হাসপাতাল সড়কে বিসিআইসি অনুমোদিত মেসার্স এশিয়া এন্টারপ্রাইজ নামে সারের গুদামের সামনে এই বিক্ষোভ করা হয়।

jagonews24

বগুড়ায় কৃষকদের বিক্ষোভ

এরপরই সার নিয়ে বিজ্ঞপ্তি দেয় কৃষি মন্ত্রণালয়। এতে বলা হয়, চাহিদার বিপরীতে দেশে সব রকমের সারের পর্যাপ্ত মজুত রয়েছে। বর্তমানে (১৮ আগস্ট পর্যন্ত) ইউরিয়া সারের মজুত ৬ লাখ ৪৫ হাজার টন, টিএসপি ৩ লাখ ৯৪ হাজার টন, ডিএপি ৭ লাখ ৩৬ হাজার টন ও এমওপি ২ লাখ ৭৩ হাজার টন।

বিগত বছরের একই সময়ের তুলনায় সারের বর্তমান মজুত বেশি বলে জানায় মন্ত্রণালয়। বলা হয়, বিগত বছরে এই সময়ে ইউরিয়া সারের মজুত ছিল ৬ লাখ ১৭ হাজার টন, টিএসপি ২ লাখ ২৭ হাজার টন ও ডিএপি ৫ লাখ ১৭ হাজার টন।

বর্তমান মজুতের বিপরীতে আগস্ট মাসে সারের চাহিদা হলো ইউরিয়া ২ লাখ ৫১ হাজার টন, টিএসপি ৪৭ হাজার টন, ডিএপি ৮১ হাজার টন ও এমওপি ৫২ হাজার টন।

বিজ্ঞপ্তি আরও বলা হয়, বগুড়া জেলাতেও সব রকমের সারের মজুত প্রয়োজনের চেয়ে বেশি রয়েছে। বৃহস্পতিবার সেখানে ইউরিয়া সারের মজুত এক হাজার ৬৭৩ টন, টিএসপি ৬৮৯ টন, ডিএপি ১৪০০ টন এবং এমওপি ৪৪৪ টন রয়েছে।

আরএমএম/জেডএইচ/জেআইএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।