ফেসবুকে রাজনৈতিক ‘তর্ক’

আটক মারুফকে ছাড়িয়ে আনার পথে ছাত্রলীগের হামলা, আহত ২

ঢামেক প্রতিবেদক
ঢামেক প্রতিবেদক ঢামেক প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৪:১২ পিএম, ১৯ আগস্ট ২০২২
আহত দুই শিক্ষার্থী/ছবি: সংগৃহীত

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) মুক্তিযোদ্ধা জিয়াউর রহমান হলের আবাসিক শিক্ষার্থী মিফতাহুল মারুফকে ‘রাষ্ট্রবিরোধী কার্যক্রম’ ও ‘জঙ্গিবাদে’ জড়িত থাকার অভিযোগে পুলিশে সোপর্দ করেন হল প্রাধ্যক্ষ। পুলিশ তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য শাহবাগ থানায় নিয়ে যায়। পরে মারুফকে ছাড়িয়ে আনতে থানায় যান নির্যাতনের বিরুদ্ধে শিক্ষার্থী (স্যাট) প্লাটফর্মের প্রতিনিধিরা।

পথে তাদের ওপর ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা হামলা চালিয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এতে দুই শিক্ষার্থী আহত হয়েছেন। শুক্রবার (১৯ আগস্ট) দুপুর ১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন- আইন বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী মো. সালেহ উদ্দিন শিফাত (২২) ও উর্দু বিভাগের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী মো. আহনাফ (২৪)। সালেহ উদ্দিন শিফাত কবি জসীম উদ্দীন হলের আবাসিক শিক্ষার্থী।

আহত অবস্থায় তাদেরকে উদ্ধার করে দুপুর দেড়টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নেওয়া হয়। বর্তমানে তারা চিকিৎসাধীন।

আরও পড়ুন>> মেসেঞ্জারে রাজনৈতিক তর্ক, শিক্ষার্থীকে জঙ্গি বলে পুলিশে দিলো ঢাবি

ঢামেক হাসপাতালের পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ (পরিদর্শক) মো. বাচ্চু মিয়া জানান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই শিক্ষার্থীকে হাসপাতালে আনা হয়েছে। তারা জরুরি বিভাগে চিকিৎসা নিচ্ছেন। তারা শঙ্কামুক্ত। প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে তাদেরকে ছেড়ে দেওয়া হতে পারে।

এদিকে, পুলিশে হস্তান্তর করার পর হল মুক্তিযোদ্ধা জিয়াউর রহমান হলের প্রাধ্যক্ষ উপস্থিত সাংবাদিকদের সেসময় বলেন, ‘আমরা মারুফের কাছ থেকে রাষ্ট্রবিরোধী ও জঙ্গি কার্যক্রমের সঙ্গে যুক্ত থাকার প্রমাণ পাই। এজন্য তার বিরুদ্ধে যথাযথ আইনি ব্যবস্থা নিতে পুলিশে হস্তান্তর করি।’

তবে শাহবাগ থানা পুলিশ জানিয়েছে, ওই শিক্ষার্থীকে (মিফতাহুল মারুফ) যেসব অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশে দেওয়া হয়, তদন্ত করে এ ধরনের কোনো অভিযোগের সত্যতা পাওয়া যায়নি। তার পরিবার ও তার কোনো ধরনের রাজনৈতিক সংশ্লিষ্টতার প্রমাণও মেলেনি। এজন্য তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

কাজী আল-আমিন/এএএইচ/জিকেএস

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।