বিশ্বে শান্তিরক্ষী প্রেরণে এখনো প্রথম বাংলাদেশ

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮:৪১ পিএম, ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২২
ফাইল ছবি

জাতিসংঘে শান্তিরক্ষী পাঠানোর দিক দিয়ে ২০২০ সালে শীর্ষ স্থান অর্জন করেছিল বাংলাদেশ। সেই গৌরব এখনো রয়েছে বাংলাদেশের ঝুলিতে। অর্থাৎ শান্তিরক্ষী পাঠানোর দিক দিয়ে বিশ্বে বাংলাদেশের অবস্থান প্রথম।

বুধবার (১৪ সেপ্টেম্বর) সংসদ ভবনে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠকে এ তথ্য জানানো হয়।

বৈঠকে ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মিনহাজ, নৌবাহিনীর ক্যাপ্টেন জিল্লুর রহিম, বিমানবাহিনীর এয়ার কমডোর রুসাদ শান্তিরক্ষা মিশনে বাংলাদেশের কার্যক্রম তুলে ধরেন।

তারা উল্লেখ করেন, ১৯৮৮ সালে ইরাক-ইরান সামরিক মিশনে ১৫ জন মিলিটারি পর্যবেক্ষক নিয়ে জাতিসংঘের অধীনে বাংলাদেশের শান্তিরক্ষা কার্যক্রম শুরু হয়। এ পর্যন্ত ৪০টি দেশে ৫৪টি শান্তিরক্ষা মিশনে বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনীর এক লাখ ৮৩ হাজার ৬৭৯ জন সদস্য অংশ নিয়েছেন।

বর্তমানে বিশ্বের আটটি দেশের নয়টি শান্তিরক্ষা মিশনে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ছয় হাজার ৮৩২ জন সদস্য নিয়োজিত রয়েছেন। এরই মধ্যে শান্তিরক্ষা মিশনে সাফল্যের সঙ্গে দায়িত্ব শেষ করেছেন সশস্ত্র বাহিনীর ৭০১ জন নারী সদস্য। বর্তমানে ৩৭২ জন নারী শান্তিরক্ষা কার্যক্রমে কর্মরত। বিশ্ব শান্তিরক্ষায় এ পর্যন্ত বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনীর মোট ১৩৯ জন জীবন বিসর্জন দিয়েছেন এবং ২৪২ জন আহত হয়েছেন।

সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি সুবিদ আলী ভূঁইয়ার সভাপতিত্বে বৈঠকে অংশ নেন কমিটির সদস্য মো. মোতাহার হোসেন, মো. নাসির উদ্দিন, মো. মহিবুবুর রহমান এবং বেগম নাহিদ ইজাহার খান।

বৈঠকে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ সচিব, সেনাবাহিনী, বিমানবাহিনী ও নৌবাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা এবং প্রতিরক্ষা ক্রয় মহাপরিদপ্তরের ডিজি উপস্থিত ছিলেন।

এইচএস/জেডএইচ/এএসএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।