‘মেহনতীদের ন্যায্য অধিকার প্রতিষ্ঠা করাই ছিল বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন’

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮:৫০ পিএম, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২২

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, মেহনতী মানুষের ন্যায্য অধিকার প্রতিষ্ঠা করাই ছিল বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন। এজন্যই তিনি দেশকে স্বাধীন করেছিলেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও তার বাবার মতোই দরিদ্র জনগোষ্ঠীকে দারিদ্র্যসীমা থেকে উত্তরণের জন্য সম্ভাব্য সব উন্নয়ন কার্যক্রম সাহসিকতার সঙ্গে সম্পন্ন করছেন।

সোমবার (১৯ সেপ্টেম্বর) নিজ নির্বাচনী এলাকা রংপুরের শানেরহাট ইউনিয়নস্থ শানেরহাট দ্বিমুখী উচ্চবিদ্যালয় প্রাঙ্গণে উপকারভোগীদের মধ্যে বাইসাইকেল, সেলাই মেশিন, হুইল চেয়ার ও স্প্রে মেশিন বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত হয়ে এসব কথা বলেন স্পিকার।

এসময় স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে স্পিকারকে ফুল দিয়ে বরণ করে নেওয়া হয়।

পীরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও পীরগঞ্জ পৌরসভার মেয়র এ এস এম তাজিমুল ইসলাম শামীমের সঞ্চালনায় উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অধ্যাপক নুরুল আমিন রাজার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে ১১ নম্বর পাঁচগাছী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বাবলু মিয়া, ১০ নম্বর শানের হাট ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান, ১০ নম্বর শানের হাট ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মিজানুর রহমান মন্টু এবং ১০ নম্বর শানেরহাট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. মেজবাহুর রহমান বক্তব্য দেন।

এসময় স্পীকারের পরামর্শে পীরগঞ্জ উপজেলা প্রকৌশলী মশিউর রহমান পীরগঞ্জের প্রত্যকটি ইউনিয়নের সুসম্পন্ন ও চলমান উন্নয়ন কার্যক্রম বিষয়ে উপস্থিত জনসাধারণকে অবগত করেন।

অনুষ্ঠানে স্পিকার ১০ নম্বর শানেরহাট ইউনিয়ন এবং ১১ নম্বর পাঁচগাছি ইউনিয়নের উপকারভোগীদের মধ্যে ২২টি সেলাই মেশিন, ২০টি স্প্রে মেশিন, ২০টি হুইলচেয়ার এবং ১০১টি বাইসাইকেল বিতরণ করেন।

স্পিকার বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মা-বোনদের জন্য বয়স্ক ভাতা, বিধবা ভাতা, স্বামী পরিত্যক্তা ভাতা, মাতৃত্বকালীন ভাতা দিচ্ছেন। দ্রব্যমূল্য সাধারণ মানুষের ক্রয়ক্ষমতার আওতায় রাখার জন্য এক কোটি কার্ড বিতরণ করা হচ্ছে। আশ্রয়ণ প্রকল্পের আওতায় ৯ লাখ মানুষকে ঘর করে দেওয়ার কার্যক্রম চলছে। সারাদেশে ৫০০টি মডেল মসজিদ নির্মাণ কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে। তিনি এসব উন্নয়ন কার্যক্রমে বর্তমান সরকারের সঙ্গে থাকার জন্য সবার প্রতি আহ্বান জানান।

তিনি বলেন, বর্তমান সরকার কৃষিবান্ধব। কৃষিতে পর্যাপ্ত ভর্তুকির মাধ্যমে সার, বীজ, কীটনাশকসহ বিভিন্ন কৃষি উপকরণ কৃষকের হাতে পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে। পীরগঞ্জেও ডিলারদের মাধ্যমে কৃষকদেরকে সুষ্ঠুভাবে কৃষি উপকরণ দেওয়া হচ্ছে। নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি অনুসারে কৃষিকাজের সুবিধার্থে পীরগঞ্জের শান নদী খনন করা হয়েছে।

এরপরে তিনি পীরগঞ্জ উপজেলা পরিষদে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও এলাকাবাসীর সঙ্গে মতবিনিময় করেন। এসময় তিনি পীরগঞ্জ উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার ফলক উন্মোচন করেন।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রংপুরের জেলা প্রশাসক আসিফ আহসান, পুলিশ সুপার ফেরদৌস আলী চৌধুরী, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিরোদা রাণী রায়, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি শাহিদুল ইসলাম পিন্টু, স্থানীয় ও জেলাপর্যায়ের আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতারা।

এইচএস/এমআইএইচএস/এএসএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।