দখলমুক্ত করার পর আবার নদী দখল হয়েছে, এমন নজির নেই: প্রতিমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:৩১ পিএম, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২
ফাইল ছবি

নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, নদী দখলমুক্তের কাজ চালিয়ে যাচ্ছি। নদী দখলমুক্ত করার পর আবার দখল হয়েছে, এমন নজির নেই। একটা খালি জায়গা থাকলে মানুষ সেখানে বসে পড়ে। তার মানে এই নয় যে, সেটা দখল হয়ে গেছে। আমরা যেসব জায়গা উদ্ধার করেছি, তা সম্পূর্ণভাবে আমাদের দখলেই আছে।

রোববার (২৫ সেপ্টেম্বর) নদী দিবস উপলক্ষে রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে জাতীয় নদী রক্ষা কমিশন আয়োজিত ‘রাইটস অব রিভার’ শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, চারদিকে শুধু হতাশার কথা বলা হয়। যে দেশে ৩০ লাখ মানুষ জীবন দিতে পারে, সে জাতি আবার হতাশার কথা বলে। মানুষ কিছুটা হলেও দেশকে নিয়ে গর্ব করে। নদী নিয়ে এত হতাশার কথা হচ্ছে, এটাও কিন্তু আমাদের জন্য সান্ত্বনা। নেগেটিভ আর পজিটিভ যেটাই হোক, মানুষ নদী নিয়ে কথা বলছে।

তিনি আরও বলেন, আমরা নদী রক্ষা কমিশন গঠন করেছি। বিভাগীয় ও জেলা-উপজেলা পর্যায়ে আমাদের কমিটি আছে। আমরা যেভাবে শুরু করেছিলাম করোনার কারণে সে কাজ ধীরগতি হয়ে পড়েছে। আমরা মানুষকে প্রাধান্য দিয়েছি।

নদী দখলদারদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে জানিয়ে তিনি বলেন, নদী রক্ষা কমিশন অনেক দখল হয়ে গেছে এমন জায়গা পরিদর্শন করেছে। তালিকাও করা হয়েছে। জেলা-উপজেলা পর্যায়েও পদক্ষেপ নেওয়া হবে। আমাদের সক্ষমতা ও জনবল কিছু দুর্বলতা আছে আমরা সেগুলোকে কাটিয়ে উঠবো। তালিকা যেহেতু হয়েছে বাকি কাজও হবে।

মানুষ সচেতন নয় মন্তব্য করে তিনি বলেন, মাছের পেটের মধ্যে প্লাস্টিক পাওয়া গেছে এমন কথাও এসেছে। এতে তো আমাদের কিছু করার নেই। মানুষ কোথায় কী ফেলতে হবে, তাও বোঝে না। মানুষকে সচেতন হতে হবে।

অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন সেন্টার ফর গভর্ন্যান্স স্টাডিজের এক্সিকিউটিভ ডাইরেক্টর জিল্লুর রহমান। জাতীয় নদী রক্ষা কমিশনের চেয়ারম্যান মনজুর আহমেদ চৌধুরীর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন জাতিসংঘের রেসিডেন্ট প্রতিনিধি মিজ গোয়েন লুইস। মুখ্য আলোচক হিসেবে বক্তব্য দেন ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের ইমেরিটাস অধ্যাপক ডক্টর আইনুন নিশাত।

এছাড়াও বিভিন্ন স্থান থেকে আসা নদী সুরক্ষা নিয়ে কাজ করা বিভিন্ন সংস্থা, প্রতিষ্ঠান ও সংগঠনের প্রতিনিধিরা বক্তব্য ও মতামত দেন।

এমআইএস/এমআইএইচএস/জেআইএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।