বাতিল ফর্মে এসিআর দাখিল, বিশেষ বিবেচনায় দেওয়া হবে নম্বর

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:২২ পিএম, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২
ফাইল ছবি

প্রশাসনের বিপুল সংখ্যক কর্মকর্তা বাতিল ফর্মে বার্ষিক গোপনীয় অনুবেদন (এসিআর) দাখিল করেছেন। এসব এসিআর বাতিল হলে প্রশাসনিক জটিলতা সৃষ্টি হতে পারে। এ আশঙ্কায় বিশেষ বিবেচনায় কর্মকর্তাদের নম্বর দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়।

মঙ্গলবার (২৭ সেপ্টেম্বর) জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে এ বিষয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে।

এতে বলা হয়, গোপনীয় অনুবেদন ফর্ম এবং এ সংক্রান্ত ২০১২ সালের অনুশাসনমালা ২০২১ সালের ৭ জানুয়ারি গেজেটের মাধ্যমে বাতিল করে নতুন গোপনীয় অনুবেদন ফর্ম এবং ‘গোপনীয় অনুবেদন অনুশাসনমালা, ২০২০’ জারি করা হয়েছে। গোপনীয় অনুবেদন ফর্মটি ২ জুন পুনর্বিন্যাস করে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে আপলোড করা হয়েছে।

প্রজ্ঞাপন আরও বলা হয়, নতুন ফর্ম এবং অনুশাসনমালা অসামরিক প্রশাসনে নিয়োজিত নবম গ্রেড ও এর ওপরের প্রায় সব কর্মকর্তার ক্ষেত্রে প্রযোজ্য। প্রাপ্ত বিভিন্ন তথ্য পর্যালোচনা করে আশঙ্কা করা যাচ্ছে যে, বিভিন্ন মন্ত্রণালয়/দপ্তর/ অধিদপ্তর/সংস্থা/প্রতিষ্ঠানে অনেক কর্মকর্তা বাতিল করা ফর্মে ২০২১ সালের এসিআর দাখিল করেছেন। বাতিল ফর্মে কিন্তু যথাসময়ে দাখিল করা এ বিপুল সংখ্যক কর্মকর্তার এসিআর নাকচ করা হলে তাদের পদোন্নতি ও পদায়ন এবং অন্যান্য ক্ষেত্রে ব্যাপক প্রশাসনিক জটিলতা সৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

এ অবস্থায় গত ২ জুনের আগের ফর্মে দাখিল করা এসিআর বাতিল করে বিশেষ বিবেচনায় গড় নম্বর দেওয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট ডোসিয়ার সংরক্ষণকারী কর্তৃপক্ষকে নির্দেশনা দেওয়া হয় প্রজ্ঞাপনে। এ বিধান কেবলমাত্র ২০২১ সালের এসিআরের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য হবে বলে প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়।

প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী, অনুবেদনাধীন (যার এসিআর) কর্মচারী যথানিয়মে যথাসময়ে এসিআর দাখিল করলে প্রমাণক যাচাই অন্তে তার কোনো ত্রুটি না থাকলে তাকে অব্যাহতি দিয়ে পূর্ববর্তী ৩ বছরের প্রাপ্ত এসিআরের গড় নম্বর দেবে। তবে পূর্ববর্তী এসিআরের সংখ্যা ৩ বছরের কম হলে প্রাপ্ত এসিআরের ভিত্তিতে গড় নম্বর দিতে হবে। অনুবেদনাধীন কর্মচারীর পূর্ববর্তী কোনো এসিআর না থাকলে ৯৪ নম্বর দিতে হবে।

আরএমএম/জেডএইচ/জেআইএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।