‘জলাতঙ্ক বিপজ্জনক হলেও প্রতিরোধযোগ্য’

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক চট্টগ্রাম
প্রকাশিত: ০৩:০৭ এএম, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২

জলাতঙ্ক বিপজ্জনক হলেও শতভাগ প্রতিরোধযোগ্য বলে জানিয়েছেন চট্টগ্রাম ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ও উপ-পরিচালক ডা. সেখ ফজলে রাব্বি।

তিনি বলেছেন, ঘাতক ব্যাধি জলাতঙ্কের প্রধান বাহক কুকুর। এছাড়া বিড়াল, বেজি ও শিয়ালের আঁছড় বা কামড়ে এ রোগ হতে পারে। জলাতঙ্ক একদিকে শতভাগ বিপজ্জনক, অন্যদিকে শতভাগ প্রতিরোধযোগ্য।

বুধবার (২৮ সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে ১১টায় চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালের সম্মেলন কক্ষে ‘বিশ্ব জলাতঙ্ক দিবস’ উপলক্ষে আয়োজিত সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। সভায় মূল প্রবন্ধ উপস্থান করেন ডা. মোহাম্মদ মোর্শেদ।

ডা. ফজলে রাব্বি বলেন, আক্রান্তের পরপর চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী যথাসময়ে অ্যান্টিরেবিস টিকা নেওয়া হলে প্রায় শতভাগ ক্ষেত্রে জলাতঙ্ক রোগ প্রতিরোধ নিশ্চিত করা যেতে পারে। জলাতঙ্ক এখন আগের মতো ভয়ের বিষয় নয়, বরং মানুষ সচেতন হলেই এর সংক্রমণ থেকে রক্ষা পাওয়া সম্ভব।

তিনি বলেন, কুকুর বা অন্য কোনো প্রাণি দ্বারা জলাতঙ্ক আক্রান্ত হলে রোগীর দেহে সৃষ্ট ক্ষতস্থান খুব দ্রুত ক্ষারযুক্ত সাবান ও প্রবাহমান পানি দ্বারা ১৫ মিনিট ধরে ধোয়া হলে সেখানে নিপতিত বা রেবিস ভাইরাস অপসারিত বা নিস্ক্রিয় হয়ে পড়ে। এ প্রযুক্তি প্রয়োগ করেই প্রায় শতকরা ৮০ভাগ ক্ষেত্রে এ ভয়ংকর ব্যাধি প্রতিরোধ করা সম্ভব হতে পারে।

সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. মোস্তফা জামাল হায়দার, সিনিয়র কনসালট্যান্ট (অর্থো সার্জারী) ডা. অজয় কুমার দাশ, কনসালট্যান্ট (মেডিসিন) ডা. হামিদুল্লাহ মেহেদী প্রমুখ। এসময় উপস্থিত ছিলেন সিনিয়র-জুনিয়র কনসালট্যান্ট, মেডিকেল অফিসার, নার্স ও কর্মচারীরা।

ইকবাল হোসেন/আরএডি

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।