অজ্ঞানপার্টির খপ্পরে পড়ে প্রাণ গেলো ব্যবসায়ীর

ঢামেক প্রতিবেদক
ঢামেক প্রতিবেদক ঢামেক প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০২:১৪ পিএম, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২
ফাইল ছবি

রাজধানীতে অজ্ঞানপার্টির খপ্পরে পড়ে মো. আব্দুল্লাহ বাবু (৬০) নামের এক কাপড় ব্যবসায়ীর চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয়েছে। পরিবারের অভিযোগ, ওই ব্যক্তির কাছে থাকা অনুমানিক ৭০ হাজার টাকা ও দুটি মোবাইল ছিনিয়ে নিয়েছে অজ্ঞান পার্টির সদস্যরা।

বুধবার (২৮ সেপ্টেম্বর) বিকেল ৫টার দিকে এ ঘটনাটি ঘটে। অচেতন অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে মুগদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বৃহস্পতিবার (২৯ সেপ্টেম্বর) ভোর সোয়া ৪টার দিকে তার মৃত্যু হয়।

মতিঝিল থানা উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. শহিদুল ইসলাম ঘটনার সতত্য নিশ্চিত করে জাগো নিউজকে জানান, খবর পেয়ে মুগদা হাসপাতাল থেকে মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। আইনি প্রক্রিয়া শেষে মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

তিনি বলেন, আমরা মৃত ব্যক্তির ছেলের কাছ থেকে জানতে পেরেছি, ব্যবসার কাজ শেষে কিশোরগঞ্জের ভৈরব থেকে একটি বাসে ঢাকায় ফেরার পথে অজ্ঞানপার্টির সদস্যরা তার কাছে থাকা টাকা ও দুটি মোবাইল নিয়ে পালিয়ে যায়। পরে কমলাপুর ব্রাহ্মণবাড়িয়া বাস কাউন্টারের সামনে অচেতন অবস্থায় পড়ে থাকলে দ্রুত মুগদা হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন রিপোর্ট পেলে মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে বলে জানান তিনি।

মৃত ব্যক্তির ছেলে নুরুল আলম বলেন, আমার বাবা কাপড় ব্যবসা করতেন। ঢাকায় আমাদের একটি দোকানও রয়েছে। তিনি ভৈরবে মেলায় কাপড় বিক্রি করতে গিয়েছিলেন। ফেরার পথে তাকে কিছু খাইয়ে সঙ্গে থাকা ৭০ হাজার টাকা ও দুটি মোবাইল ছিনিয়ে নেয় অজ্ঞান পার্টির সদস্যরা। পরে মুগদা হাসপাতালে তিনি মারা যান।

জানা গেছে, আব্দুল্লাহ বাবুর গ্রামের বাড়ি মুন্সীগঞ্জ জেলার টঙ্গীবাড়ী থানার ধামারন গ্রামে। রাজধানীর মুগদায় ১ নম্বর গলি এলাকার ৫১ নম্বর বাসায় পরিবার নিয়ে থাকতেন।

এমকেআর/এএসএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।