রাঙ্গুনিয়ায় এনাম হত্যা

খাটের নিচ থেকে টেনে বের করে ব্রাশফায়ার, গ্রেফতার ২

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক চট্টগ্রাম
প্রকাশিত: ০৮:০৫ পিএম, ০১ অক্টোবর ২০২২

চট্টগ্রামের দক্ষিণ রাঙ্গুনিয়ায় এনাম উদ্দিন নামে এক যুবককে প্রতিবেশীর খাটের নিচ থেকে টেনে বের করে গুলি (ব্রাশফায়ার) করে হত্যার অভিযোগে দুইজনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)।

গ্রেফতাররা হলেন— দক্ষিণ রাঙ্গুনিয়া থানার মাইশাবাম গ্রামের মৃত বাদশা মিয়ার ছেলে কামাল উদ্দিন ওরফে গাছ কামাল (৩৮) এবং মো. নুরুল ইসলামের ছেলে মো. ইউসুফ (২৪)।

শনিবার (১ অক্টোবর) দুপুরে এক সংবাদ সম্মেলনে তাদের গ্রেফতারের তথ্য নিশ্চিত করেন র‌্যাব-৭ এর সিও লেফটেন্যান্ট কর্নেল এম এ ইউসুফ।

তিনি বলেন, চলতি বছরের ১৯ জুলাই রাতে হত্যাকাণ্ডের শিকার এনাম নিজের ঘরে ঘুমাচ্ছিলেন। গ্রেফতার কামাল ও ইউসুফ দলবল নিয়ে এনামকে বসতঘর থেকে বের করে গুলি করে হত্যা করে। এসময় তাদের হামলা থেকে প্রাণে রক্ষা পেতে এক প্রতিবেশীর ঘরের খাটের নিচে লুকিয়ে থেকেও নিস্তার পাননি তিনি। প্রতিবেশীর খাটের নিচ থেকে এনামকে টেনে বের করে গুলি (ব্রাশফায়ার) করে ঘাতকরা। এসময় এনাম ছটপট করলে বুকের ওপর দাঁড়িয়ে কপালে ও নাকের ওপর গুলি করে ঘাতকরা। এরপর মৃত্যু নিশ্চিত করে চলে যান তারা।

এ ঘটনায় গত ২০ জুলাই ভিকটিমের ছোট ভাই বাদী হয়ে ঘটনার সঙ্গে জড়িত পাঁচজনকে এজাহারনামীয় এবং ৭ থেকে ৮ জনকে অজ্ঞাতনামা আসামি করে দক্ষিণ রাঙ্গুনিয়া থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। ওই মামলার সূত্র ধরে শুক্রবার (৩০ সেপ্টেম্বর) দিনগত রাতে চট্টগ্রাম মহানগরীর বায়োজিদ বোস্তামি থানার ক্যান্টনমেন্ট রেলস্টেশন এবং চান্দগাঁও থানার কাপ্তাই রাস্তার মাথা এলাকায় অভিযান চালিয়ে দুই আসামিকে গ্রেফতার করা হয়।

র‌্যাব-৭ এর জ্যেষ্ঠ সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) মো. নূরুল আবছার জানান, দক্ষিণ রাঙ্গুনিয়া থানার এনাম হত্যাকাণ্ডের বিষয়টি ছায়াতদন্ত ও আসামিদের প্রতি গোয়েন্দা নজরদারি রাখা হয়। শুক্রবার ভোরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে বায়োজিদ বোস্তামি ক্যান্টনমেন্ট রেলস্টেশন এবং কাপ্তাই রাস্তার মাথা এলাকা থেকে দুই আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের শনিবার দক্ষিণ রাঙ্গুনিয়া থানায় সোপর্দ করা হয়েছে।

ইকবাল হোসেন/এমএএইচ/জেআইএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।