জেলা পরিষদ নির্বাচন

চেয়ারম্যান প্রার্থী ৫ লাখ টাকা ব্যয় করতে পারবেন

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬:০১ পিএম, ০৪ অক্টোবর ২০২২
ফাইল ছবি

আসন্ন জেলা পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থীরা সর্বোচ্চ পাঁচ লাখ এবং সংরক্ষিত আসনের মহিলা সদস্য ও সাধারণ সদস্য প্রার্থী এক লাখ টাকা নির্বাচনী ব্যয় করতে পারবেন। এছাড়া চেয়ারম্যান প্রার্থী ব্যক্তিগত খরচ বাবদ সর্বোচ্চ ৫০ হাজার এবং সাধারণ ও সংরক্ষিত ওয়ার্ডের সদস্যরা ১০ হাজার টাকা খরচ করতে পারবেন।

নির্বাচন কমিশনের (ইসি) উপ-সচিব মো. আতিয়ার রহমান সব প্রার্থীর ব্যয়সীমা সংক্রান্ত এ নির্দেশনা সম্প্রতি রিটার্নিং কর্মকর্তাদের কাছে পাঠিয়েছেন ।

নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদের প্রার্থীদের আয়কর সনদসহ রিটার্ন জমা দেওয়ার প্রমাণ জমা দিতে হবে। অন্যদিকে শুধু সিটি করপোরেশন ও পৌরসভা এলাকার সংরক্ষিত আসনের মহিলা সদস্য ও সাধারণ সদস্য প্রার্থীদের ১২ ডিজিটের আয়কর সনদ ও রিটার্ন জমার প্রমাণপত্র দিতে হবে। এ দুই পদে সিটি করপোরেশন ও পৌরসভা এলাকার বাইরের প্রার্থীদের আয়কর সনদ দেওয়ার প্রয়োজন পড়বে না।

প্রার্থীদের নির্বাচনী ব্যয় তার এজেন্ট ছাড়া অন্য কোনো ব্যক্তি খরচ করতে পারবেন না। যা কোনো তফসিলি ব্যাংকের নতুন একটি অ্যাকাউন্ট থেকে পরিচালিত হতে হবে।

এদিকে, অন্য একটি নির্দেশনায় জেলা পরিষদ নির্বাচনের ভোটকক্ষে কোনো ভোটার মোবাইলফোন নিয়ে প্রবেশ করতে পারবে না বলে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। নির্বাচনী কেন্দ্রে পোলিং এজেন্ট ও নির্বাচনী এজেন্টও মোবাইল ব্যবহার করতে পারবে না।

নির্বাচনের ফলাফল সরকারি গেজেটে প্রকাশের ৩০ দিনের মধ্যে রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে ব্যয়ের তথ্য দাখিল করতে প্রার্থী বাধ্যবাধকতা দিয়েছে ইসি।

নির্দেশনায় এসব তথ্য ভোটারদের মধ্যে প্রচারের ব্যবস্থা করার জন্যও রিটার্নিং কর্মকর্তাদের নির্দেশনা দিয়েছে সংস্থাটি।

আগামী ১৭ অক্টোবর জেলা পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

এইচএস/আরএডি/এএসএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।