বিদ্যুৎ বিপর্যয়

পূজামণ্ডপে পুলিশের বাড়তি সতর্কতা, থাকছে আলোর ব্যবস্থাও

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮:০৬ পিএম, ০৪ অক্টোবর ২০২২

জাতীয় গ্রিডে বিপর্যয়ের কারণে দুপুর ২টার পর থেকে বিদ্যুৎবিচ্ছিন্ন ঢাকা। এখনো রাজধানীর অধিকাংশ অঞ্চলে বিদ্যুৎ নেই। একই সঙ্গে বিদ্যুৎ নেই চট্টগ্রাম, খুলনা ও সিলেট বিভাগের অধিকাংশ এলাকায়। এমন পরিস্থিতিতে সারাদেশে পূজামণ্ডপে বাড়তি সতর্কতা জারি করেছে পুলিশ সদরদপ্তর।

মঙ্গলবার (৪ অক্টোবর) সন্ধ্যায় পুলিশ সদরদপ্তরের ডিআইজি (অপারেশনস অ্যান্ড প্ল্যানিং) মো. হায়দার আলী খান জাগো নিউজকে এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, বিদ্যুৎবিচ্ছিন্ন এলাকার পূজামণ্ডপে বাড়তি সতর্কতা জারি করেছে পুলিশ। বিদ্যুৎ সংযোগ না আসা পর্যন্ত সবাইকে সচেতন ও বাড়তি আলোর ব্যবস্থার জন্য নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

হায়দার আলী খান বলেন, যেসব মণ্ডপে জেনারেটর নেই, সন্ধ্যার আগেই সেখানে জেনারেটর অথবা পর্যাপ্ত আলোর ব্যবস্থা করা হয়েছে। সিসিটিভি সচল রাখার জন্যও বিকল্প ব্যবস্থা করতে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। পোশাকে ও সাদা পোশাকে পুলিশের সার্বক্ষণিক টহল ও গোয়েন্দা নজরদারিও বাড়ানো হয়েছে।

ডিএমপির অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ক্রাইম) এ কে এম হাফিজ আক্তার বলেন, ঢাকার সব পূজামণ্ডপে নিরাপত্তা ব্যবস্থা বাড়াতে কর্মকর্তাদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সার্বক্ষণিক টহল, সাদা পোশাকে গোয়েন্দা নজরদারি রাখতে বলা হয়েছে। ডিএমপির সব থানা, ডিবি ও ক্রাইম ডিভিশনকে এ নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। যেসব এলাকায় পূজামণ্ডপ বেশি এবং বড় বড় মণ্ডপ রয়েছে, সেখানে বেশি সংখ্যক পুলিশের উপস্থিতি ও নজরদারি রাখতে বলা হয়েছে।



তিনি বলেন, পূজা কমিটিকে অনুরোধ করা হয়েছে জেনারেটরের ব্যবস্থা করতে। পর্যাপ্ত আলোর ব্যবস্থা রাখতে।

সিলেট রেঞ্জের ডিআইজি মফিজ উদ্দিন আহম্মেদ জাগো নিউজকে বলেন, পূজামণ্ডপে নিরাপত্তার স্বার্থে বাড়তি নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। সব পুলিশ সুপারকে (এসপি) নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। পুলিশের অতিরিক্ত সদস্য মোতায়েনসহ টহল পার্টি, প্রতি ইউনিয়নে বিট পুলিশ ও মণ্ডপকেন্দ্রিক টহল জোরদার করতে বলা হয়েছে। এছাড়া অতিরিক্ত আলোর ব্যবস্থা রাখতে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

টিটি/এএএইচ/এএসএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।