জঙ্গি পালানোর দায় এড়াতে পারে না আইনশৃঙ্খলা বাহিনী: র‌্যাব

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১২:৫৭ পিএম, ০৫ ডিসেম্বর ২০২২
র‌্যাব মিডিয়া সেন্টারে সংবাদ সম্মেলনে কমান্ডার খন্দকার আল মঈন

ঢাকার আদালত থেকে দুই জঙ্গি পালানোর ঘটনায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী দায় এড়াতে পারে না বলে জানিয়েছেন র‌্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন।

তিনি বলেন, জঙ্গিদের গ্রেফতারে পুলিশের একাধিক টিমসহ র‌্যাব কাজ করছে। আশা করি আমরা তাদের গ্রেফতার করতে পারবো।

সোমবার (৫ ডিসেম্বর) দুপুরে কারওয়ান বাজারে র‌্যাব মিডিয়া সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন কমান্ডার খন্দকার আল মঈন।

jagonews24

তিনি বলেন, আদালত প্রাঙ্গণ থেকে জঙ্গি পালানোর ঘটনায় অবশ্যই আইনশৃঙ্খলা বাহিনী হিসেবে আমরা দায় এড়াতে পারি না। জঙ্গিদের বিষয়ে আগের তথ্য থাকলে পদক্ষেপ নেওয়া সহজ হতো। অথবা পালিয়ে যাওয়ার বিষয়টা রোধ করা যেত। তবে তাদের গ্রেফতারে গোয়েন্দা নজরদারি অব্যাহত রয়েছে। তাদের আগের অপরাধ কার্যক্রম, বিভিন্ন স্থানে বিচরণের সিসিটিভি ফুটেজ সবকিছু মূল্যায়ন করে আমরা এগোচ্ছি।

আরও পড়ুন: ফিল্মি স্টাইলে জঙ্গি ছিনতাই, ২০১৪ সালের পুনরাবৃত্তি

পলাতক দুই জঙ্গি দেশে আছে না দেশের বাইরে পালিয়ে গেছেন- এমন প্রশ্নের জবাবে কমান্ডার মঈন বলেন, এখনো নিশ্চিত নই, তবে যে সিসিটিভি ফুটেজ আমরা পেয়েছি সেগুলো নিয়ে কাজ করছি। পাশাপাশি পুলিশের অন্যান্য ইউনিটও কাজ করছে।

২০ নভেম্বর ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালত প্রাঙ্গণ থেকে ছিনিয়ে নেওয়া মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত দুই জঙ্গিকে। তারা হলেন আনসার আল ইসলামের দুই সদস্য মইনুল হাসান শামীম ও মো. আবু ছিদ্দিক সোহেল। পুলিশের চোখে স্প্রে ছিটিয়ে, কিল-ঘুষি মেরে ছিনিয়ে নেওয়া হয় তাদের।

ওইদিন বেলা ১২টার দিকে মামলার শুনানি শেষে আদালত থেকে হাজতখানায় নেওয়ার পথে এই ঘটনা ঘটে। এরপর জঙ্গিদের নিয়ে সহযোগীরা একটি লাল রঙের মোটরসাইকেলে রায়সাহেব বাজার মোড়ের দিকে পালিয়ে যান।

স্থানীয়রা জানান, আসামিদের ছিনিয়ে নিতে আসা একজনের কাছে স্প্রে ছিল। স্প্রে ছিটানোর সময় চিৎকার শোনা যায়।

টিটি/জেডএইচ/জেআইএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।