বুড়িগঙ্গায় মিলছে মরদেহ, অপরাধী শনাক্তে বসছে সিসি ক্যামেরা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৪:২৪ পিএম, ০৫ ডিসেম্বর ২০২২

রাজধানীর বুক চিরে বয়ে যাওয়া বুড়িগঙ্গা নদীতে সম্প্রতি অজ্ঞাত ব্যক্তিদের লাশ মিলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। বুড়িগঙ্গায় হত্যাকারীরা কেন লাশ ফেলে রেখে যাচ্ছে তার কারণ খুঁজছে পুলিশ। তবে হত্যাকারীরা যাতে আর বুড়িগঙ্গা নদীতে লাশ ফেলে পালিয়ে যেতে না পারে সে বিষয়টি নজরদারির জন্য সিসি ক্যামেরা বসানোর পরিকল্পনা করা হচ্ছে। পুলিশ বলছে, এটি করা গেলে এ ধরনের অপরাধ শূন্যের কোটায় নিয়ে আসা সম্ভব।

সোমবার (৫ ডিসেম্বর) দুপুরে বসিলা পুলিশ ফাঁড়িতে এক সংবাদ সম্মেলনে নৌ পুলিশের ঢাকা অঞ্চলের পুলিশ সুপার গৌতম কুমার বিশ্বাস সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এ কথা জানান।

তিনি বলেন, আমাদের নদী এলাকায় মাঝেমধ্যে কিছু পচা-গলা লাশ উদ্ধার করছি। আসলে এটা কী কারণে ঘটছে এবং হত্যাকারীরা বুড়িগঙ্গাকে ডাম্পিং হিসেবে বেছে নিচ্ছে কি না সে বিষয়ে আমরা সোচ্চার আছি। বিষয়টি নিয়ে ঊর্ধ্বতন সব কর্মকর্তার সঙ্গে আমরা আলোচনাও করেছি। আমরা কিছু পরিকল্পনাও করেছি।

সম্প্রতি ঘটে যাওয়া ঘটনাগুলো নজরে নিয়ে নৌ পুলিশ যেসব পরিকল্পনা নিয়েছে সে বিষয়ে তিনি বলেন, পরিকল্পনার মধ্যে রয়েছে আমাদের নৌঞ্চলের নজরদারি বাড়ানো। সেখানে অবশ্যই সিসি ক্যামেরার নজরদারি আধুনিক প্রযুক্তির অংশ হিসেবে যুক্ত থাকবে। বিভিন্ন হাইওয়ে এবং মার্কেটে যেমন সিসি ক্যামেরার ব্যবস্থা রাখা হয়েছে, ঠিক তেমনি নদী অঞ্চলগুলোকে সিসি ক্যামেরা আওতায় আনা যায় কি না তা নিয়ে আমাদের পরিকল্পনা চলছে। হয়তো অচিরেই আমরা এ বিষয়ে কাজ শুরু করবো।

গৌতম কুমার বিশ্বাস আরও বলেন, এসব পরিকল্পনার পাশাপাশি ঢাকার নদী অঞ্চলগুলোতে সম্প্রতি টহল বৃদ্ধি করা হয়েছে। তবে নৌ পুলিশের যে জনবল ঘাটতি রয়েছে তা বাড়াতে পারলে এই পরিকল্পনা আরও ফলপ্রসু হবে। তখন এ ধরনের অপরাধ কমাতে ও তা শূন্যের কোটায়ও নিয়ে আসা সম্ভব বলে মনে করেন তিনি।

টিটি/ইএ/এএসএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।