অবসরে যাচ্ছেন মুখ্য সচিব, হচ্ছেন বিশ্বব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৭:৩২ পিএম, ০৫ ডিসেম্বর ২০২২

আগামী ৮ ডিসেম্বর অবসরে যাচ্ছেন মুখ্য সচিব আহমদ কায়কাউস। অবসরের পর তাকে বিশ্বব্যাংকের বিকল্প নির্বাহী পরিচালক করা হচ্ছে।

আহমদ কায়কাউসের অবসর উপলক্ষে গত ২৮ নভেম্বর মন্ত্রিসভায় নেওয়া ধন্যবাদ প্রস্তাব থেকে এ তথ্য জানা গেছে। মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ রোববার (৪ ডিসেম্বর) ধন্যবাদ প্রস্তাবের প্রজ্ঞাপন জারি করেছে।

ধন্যবাদ প্রস্তাবে বলা হয়েছে, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্যসচিব আহমদ কায়কাউস ১৯৮৪ সালের নিয়মিত ব্যাচে বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস (প্রশাসন) ক্যাডারে যোগদানপূর্বক সুদীর্ঘ প্রায় ৩৭ বছর সরকারের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে অধিষ্ঠিত থেকে আগামী ৮ ডিসেম্বর সরকারি চাকরি থেকে অবসর গ্রহণ করবেন।

এতে বলা হয়, বর্ণাঢ্য কর্মজীবনের শুরুতে আহমদ কায়কাউস মাঠপ্রশাসন এবং মন্ত্রণালয়ের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্ব পালন করেন। পেশাগত জীবনে দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি তিনি টেক্সাস বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ‘পাবলিক পলিসি অ্যান্ড পলিটিক্যাল ইকোনমিক্স' বিষয়ে পিএইচডি ডিগ্রি লাভ করেন। চাকরি জীবনে তিনি অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগ, ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ এবং জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়সহ সরকারের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রণালয়/বিভাগে কর্মরত ছিলেন।

আহমদ কায়কাউস ২০১৬ সালে বিদ্যুৎ বিভাগের ভারপ্রাপ্ত সচিবের দায়িত্ব পালন করেন। তিনি ২০১৭ সালের ২৩ ফেব্রুয়ারি সচিব হিসেবে একই বিভাগে যোগদান করেন এবং ২০১৯ সালের ২৭ ফেব্রুয়ারি সিনিয়র সচিব হিসেবে পদোন্নতি পান। সর্বশেষ ২০১৯ সালের ৩১ ডিসেম্বর তিনি প্রধানমন্ত্রীর মুখ্যসচিব হন।

‘আহমদ কায়কাউস সুদীর্ঘ সময় প্রজাতন্ত্রের কর্মে নিযুক্ত থেকে পেশাদারত্ব, দক্ষতা, বিচক্ষণতা ও সুনামের সঙ্গে দায়িত্ব পালনের মাধ্যমে দেশ ও জাতির কল্যাণে কাজ করেন। প্রধানমন্ত্রীর মুখ্যসচিব হিসেবেও তার কর্তব্যপরায়ণতা, সার্বক্ষণিক পরিবীক্ষণ ও তদারকি সরকারের বিভিন্ন অগ্রাধিকার কর্মসূচির দ্রুত বাস্তবায়নসহ সার্বিক কর্মকাণ্ডে উদ্ভাবনী ও গতিশীলতা সঞ্চার করেছে।’

দেশ ও জাতির সেবায় গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখার জন্য মন্ত্রিসভা আহমদ কায়কাউসকে আন্তরিক অভিনন্দন ও ধন্যবাদ জানাচ্ছে একই সঙ্গে বিশ্বব্যাংকের বিকল্প নির্বাহী পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালনের ক্ষেত্রে তার সর্বাঙ্গীন সাফল্য কামনা করছে বলে ধন্যবাদ প্রস্তাবে উল্লেখ করা হয়েছে।

আরএমএম/বিএ/এএসএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।