চার মাসে দুর্নীতিবাজদের ৬ কোটি টাকার সম্পদ বাজেয়াপ্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:২০ পিএম, ০৬ ডিসেম্বর ২০২২
প্রতীকী ছবি

চলতি বছরের জুলাই-অক্টোবর এই চার মাসে দুর্নীতিবাজদের ছয় কোটি ৩৫ লাখ ১৯ হাজার ৭০১ টাকার সম্পদ বাজেয়াপ্ত করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। একই সময়ে জরিমানা করা হয়েছে ১৩৯ কোটি ১৩ লাখ ৮১ হাজার ৯৫৩ টাকা। দুদকের লিগ্যাল শাখা সূত্রে জানা গেছে এসব তথ্য।

দুর্নীতির মামলা

চলতি বছরের জুলাই থেকে অক্টোবর পর্যন্ত ঢাকা ও ঢাকার বাইরে নিম্ন আদালতে দুদকের মোট তিন হাজার ৩৩৫টি মামলা বিচারাধীন রয়েছে। এরমধ্যে দুই হাজার ৯১৩টি মামলার বিচার কার্যক্রম বর্তমানে চলমান। হাইকোর্টের আদেশে ৩৬৭টি মামলার বিচার কার্যক্রম স্থগিত রয়েছে।

এছাড়া বর্তমানে উচ্চ আদালতে দুদক সংক্রান্ত ৬০৯টি রিট, ৭৬১টি ফৌজদারি বিবিধ মামলা, ৯৬৪টি আপিল মামলা ও ৪৮৯টি ফৌজদারি রিভিশন মামলা নিষ্পত্তির অপেক্ষায় আছে। আর উচ্চ আদালত কর্তৃক ৪৩টি মামলার স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার করা হয়েছে। জুলাই-অক্টোবর এই চার মাসে ১১২ টি মামলা বিচারিক আদালতে রায় হয়েছে। এরমধ্যে সাজা হয়েছে ৭১টি মামলার।

যার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো টেকনাফের আলোচিত বরখাস্ত হওয়া ওসি প্রদীপ কুমার দাসের বিরুদ্ধে দুর্নীতি মামলা, তিতাসের উপ-ব্যবস্থাপক এস এম হাফিজুর রহমান, ধারা মাল্টিপারপাস কো-অপারেটিভ সোসাইটি লিমিটেডের মেজর জেনারেল (অব.) জালাল উদ্দিন আহমেদ ও সেনাবাহিনী থেকে বরখাস্ত হওয়া কর্নেল মো. শহিদ উদ্দিন খানের বিরুদ্ধে মামলা।

যাতে দেখা যায়, প্রদীপ ও তার স্ত্রী চুমকি কারণের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ প্রমাণ হওয়ায় গত ৭ জুলাই রায় দেন আদালত। এতে প্রদীপের স্ত্রী চুমকি কারণকে দুদক আইন, ২০০৪ এর ২৬(২) ধারায় এক বছরের সশ্রম কারাদণ্ডসহ এক লাখ টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও এক মাসের সশ্রম কারাদণ্ড, ২৭(১) ধারায় প্রত্যেক আসামিকে আট বছর করে সশ্রম কারাদণ্ডসহ ১০ লাখ টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ছয় মাসের সশ্রম কারাদণ্ড, ১৯৪৭ সালের দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের ৫(২) ধারাসহ দণ্ডবিধির ১০৯ ধারায় প্রত্যেককে ২ বছর করে সশ্রম কারাদণ্ডসহ ১০ লাখ টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও দুই মাসের সশ্রম কারাদণ্ড এবং আসামিদের মানিলন্ডারিং প্রতিরোধ আইন, ২০১২ এর ৪ (২) ধারায় ১০ বছরের সশ্রম কারাদণ্ডসহ চার কোটি টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও দুই বছরের সশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করা হয়েছে। দণ্ডসমূহ একত্রে চলবে বলে জানা যায়।

অন্যদিকে সেনাবাহিনী থেকে বরখাস্ত লেফটেন্যান্ট কর্নেল শহীদ উদ্দিন খানের বিরুদ্ধে করা দুর্নীতি মামলার অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় দুদক আইন ২৬(২) ধারায় দুই বছর বিনাশ্রম কারাদণ্ডসহ ৫০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও এক মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

এসএম/জেডএইচ/জেআইএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।