বিএনপির সমাবেশ

সাইনবোর্ডে বাস বন্ধ থাকায় সিএনজি-লেগুনায় যাত্রীরা

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১১:১৯ এএম, ১০ ডিসেম্বর ২০২২

ঢাকায় গোলাপবাগ মাঠে চলছে বিএনপির গণসমাবেশ। অন্যদিকে বন্ধ রয়েছে বাস চলাচল।গণপরিবহন না থাকায় বেশ ভোগান্তিতে পড়েছে সাধারণ মানুষ। এছাড়া সড়কে সর্তক অবস্থানে রয়েছে পুলিশ।

শনিবার (১০ ডিসেম্বর) ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের সাইনবোর্ড এলাকায় দেখা গেছে, এখানে কোনো বাস নেই। বাসের জন্য দাঁড়িয়ে আছেন যাত্রীরা। ফলে কর্মস্থল বা বিভিন্ন গন্তব্যে যেতে বেশ ভোগান্তিতে পড়েছে মানুষ। কেউ কেউ সিএনজি, লেগুনা বা ভ্যানে করে গন্তব্যে যাচ্ছেন। এসব পরিবহনে আবার নেওয়া হচ্ছে অতিরিক্ত ভাড়া।

সাইনবোর্ডে বাস বন্ধ থাকায় সিএনজি-লেগুনায় যাত্রীরা

যাত্রীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, সাইনবোর্ড থেকে গুলিস্তান যেতে সিএনজিতে জনপ্রতি ৮০ টাকা ভাড়া নেওয়া হচ্ছে। আর লেগুনায় নেওয়া হচ্ছে ৩০ টাকা।

এ বিষয়ে নারায়ণগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) আমীর খসরু জাগো নিউজকে বলেন, কোনো ধরনের অরাজকতা ও বিশৃঙ্খলা যাতে সৃষ্টি না হয় এ ব্যাপারে সতর্ক অবস্থানে আছে জেলা পুলিশ।

সাইনবোর্ডে বাস বন্ধ থাকায় সিএনজি-লেগুনায় যাত্রীরা

বাস বন্ধের বিষয়ে তিনি বলেন, গণপরিবহনের মালিক, চালক ও শ্রমিক যারা আছেন তাদের মধ্যে আতংক বিরাজ করছে। ফলে স্থবির হয়ে আছে গণপরিবহন।

এদিকে সবশেষ রাজধানীর সায়েদাবাদ বাস টার্মিনালের কাছে গোলাপবাগ মাঠে ঢাকা বিভাগীয় গণসমাবেশের অনুমতি পেয়েছে বিএনপি। অনুমতি পাওয়ার পর শুক্রবার বিকেল থেকেই সমাবেশস্থলে জড়ো হতে শুরু করেন দলটির নেতাকর্মীরা। রাতেই প্রায় ভরে যায় গোলাপবাগ মাঠ।

সাইনবোর্ডে বাস বন্ধ থাকায় সিএনজি-লেগুনায় যাত্রীরা

এরপর আজ ভোর হতেই খণ্ড খণ্ড মিছিল নিয়ে ঢাকা ও আশপাশের বিভিন্ন এলাকার নেতাকর্মীরা যোগ দিতে থাকেন সমাবেশে। এতে করে মাঠ ছাড়িয়ে সড়কে নেমেছে নেতাকর্মীদের উপস্থিতি। বিএনপির নেতাকর্মীদের মিছিল আর স্লোগানে মুখর হয়ে উঠেছে পুরো এলাকা। তবে সমাবেশে আসার পথে বাধার মুখে পড়তে হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপি নেতারা।

এর আগে বুধবার দুপুরে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে দলটির নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ হয়। এতে মকবুল হোসেন নামে একজন মারা যান। আহত হন অনেকে। এরপর বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে অভিযান চালায় পুলিশ।

সাইনবোর্ডে বাস বন্ধ থাকায় সিএনজি-লেগুনায় যাত্রীরা

নয়াপল্টন থেকে দলটির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, প্রচার সম্পাদক ও মিডিয়া সেলের সদস্য সচিব শহীদ উদ্দীন চৌধুরী এ্যানীসহ গ্রেফতার করা হয় প্রায় ৪০০ নেতাকর্মীকে।

একই সঙ্গে বৃহস্পতিবার (৮ ডিসেম্বর) রাতে উত্তরার বাসা থেকে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এবং শাহজাহানপুরের বাসা থেকে দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাসকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

এফএইচ/জেডএইচ/

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।