মলমপার্টির দৌরাত্ম্য বন্ধ করুন

সম্পাদকীয়
সম্পাদকীয় সম্পাদকীয়
প্রকাশিত: ১০:০৩ এএম, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯

অজ্ঞান পার্টির দৌরাত্ম্য বৃদ্ধির বিষয়টি অত্যন্ত উদ্বেগজনক। গণপরিবহনে যাত্রীবেশে, পথচারী কিংবা বিভিন্ন পেশার ছদ্মবেশে তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছে অজ্ঞানপার্টির সদস্যরা। প্রায় প্রতিদিনই মহানগরীর গুলিস্তান, তিন বাস টার্মিনাল, রেলওয়ে স্টেশন, লঞ্চ টার্মিনালসহ জনাকীর্ণ এলাকায় পথচারী ও যাত্রীদের অজ্ঞান করে সর্বস্ব হাতিয়ে নিচ্ছে। অজ্ঞান পার্টির কবলে পড়ে জীবনও যাচ্ছে। তাই সার্বিক আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির উন্নয়ন এবং জননিরাপত্তার স্বার্থে অজ্ঞান পার্টির দৌরাত্ম্য বন্ধ করা অত্যন্ত জরুরি।

রাজধানীর চকবাজার এলাকা হতে অজ্ঞান বা মলমপার্টির তিন সদস্যকে গ্রেফতার করেছে চকবাজার মডেল থানা পুলিশ। গ্রেফতাররা হলেন- মো. নাদিম (৩২), মো. আশরাফ আলী (৩০) ও মো. বাপ্পি (৩৫)। এ সময় তাদের কাছ হতে ২টি মুভ স্প্রে, ১টি ঝান্ডু বাম, ২টি নিক্স, ২টি গুলের কৌটা ও ১টি মোবাইল উদ্ধার করা হয়। গত মঙ্গলবার বিকেল ৩টা ২০ মিনিটে চকবাজার মডেল থানা এলাকায় বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে মলমপার্টি বা অজ্ঞান পার্টির ওই ৩ সদস্যকে গ্রেফতার করে থানা পুলিশ। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতাররা জানায়, তারা চকবাজার এলাকাসহ নগরীর ব্যাংক পাড়া, বাস বা লঞ্চ টার্মিনাল এলাকায় কৌশলে সাধারণ মানুষের চোখে অজ্ঞান করার ওষুধ লাগিয়ে টাকা, মোটরসাইকেল, মোবাইল বা মূল্যবান জিনিসপত্র নিয়ে সটকে পড়ে। এ ঘটনায় চকবাজার থানায় একটি মামলা হয়েছে। এটি স্বস্তির বিষয়। কিন্তু বিভিন্ন সময় অনেকে গ্রেফতার হলেও কয়েক দিনের মাথায় তারা জামিনে মুক্তি পেয়ে ফের একই অপরাধে জড়াচ্ছে। এই অবস্থার অবসান হওয়া প্রয়োজন।

অজ্ঞান পার্টির অপতৎপরতার বিষয়টি অত্যন্ত ভয়ানক। এদের খপ্পরে পড়ে চেতনানাশক ওষুধের প্রতিক্রিয়ায় অনেকের মৃত্যু হয়েছে। অনেকে আবার সর্বস্ব হারিয়ে দীর্ঘ মেয়াদী শারীরিক সমস্যায় ভুগেছেন। অজ্ঞান পার্টির অপতৎপরতা নতুন নয়। রাজধানীতে অজ্ঞান পার্টির একটি বিশাল চক্র রয়েছে। এরা মাঝেমধ্যে ধরা পড়লেও কিছুদিন পরেই আবার জামিনে বেরিয়ে এসে অপরাধে জড়িয়ে পড়ে। শুধু রাজধানীতে নয় দূরপাল্লার গাড়িতেও অজ্ঞান পার্টির অপতৎপরতা অব্যাহত। এদের খপ্পর থেকে মানুষজনকে বাঁচাতে হলে পুলিশের কঠোর ভূমিকা নিতে হবে। দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি ছাড়া এদের অপতৎপরতা রোধ করা সম্ভব নয়। সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে এ বিষয়টি সামনে নিয়েই এগুতে হবে। মানুষজন যেন ঘর থেকে বেরিয়ে আবার ঠিকঠাক ঘরে ফিরেতে পারে সেটি নিশ্চিত করতে হবে যে কোনো মূল্যে।

এইচআর/এমএস

‘শুধু রাজধানীতে নয় দূরপাল্লার গাড়িতেও অজ্ঞান পার্টির অপতৎপরতা অব্যাহত। এদের খপ্পর থেকে মানুষজনকে বাঁচাতে হলে পুলিশের কঠোর ভূমিকা নিতে হবে। দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি ছাড়া এদের অপতৎপরতা রোধ করা সম্ভব নয়। সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে এ বিষয়টি সামনে নিয়েই এগুতে হবে। মানুষজন যেন ঘর থেকে বেরিয়ে আবার ঠিকঠাক ঘরে ফিরেতে পারে সেটি নিশ্চিত করতে হবে যে কোনো মূল্যে।’