‘রাষ্ট্র-সমাজ ঘুষের জালে দূষিত হয়ে পড়ছে’


প্রকাশিত: ০৯:২৭ পিএম, ২০ এপ্রিল ২০১৭
‘রাষ্ট্র-সমাজ ঘুষের জালে দূষিত হয়ে পড়ছে’

মুক্তিযুদ্ধের যে সমাজনীতি সেটি আজও প্রতিষ্ঠিত হয়নি। শোষকরা সবকিছুই বাণিজ্যিকরণ করে ফেলেছে। ফলে রাষ্ট্র ও সমাজ ঘুষের জালে দূষিত হয়ে পড়ছে বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ কমিউনিস্ট পার্টির (সিপিবি) সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম।

বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেসক্লাবে ‘ঘুষ ছাড়া চাকরি চাই’ সাত দফা দাবিতে বাংলাদেশ যুব ইউনিয়নের উদ্যোগে জাতীয় যুব সমাবেশে তিনি এ কথা বলেন।

সেলিম বলেন, এখন যে রকম সমাজ ও রাষ্ট্রে আছি পাকিস্তান আমলেও একই রকম ছিল। সেই সময় স্লোগান দিয়েছি। তখন আমরা আইয়ুবের বিরুদ্ধে লড়াই করেছি।

বাংলাদেশ যুব ইউনিয়নের সভাপতি হাসান হাফিজুর রহমান সোহেলের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন সুজনের সম্পাদক ড. বদিউল আলম মজুমদার।

তিনি বলেন, খাদ্য, বস্ত্র, বাসস্থান, চিকিৎসা, শিক্ষা মানুষের মৌলিক অধিকার। এ অধিকার রক্ষা করার দায়িত্ব রাষ্ট্রের। ঘুষ ছাড়া চাকরি পাওয়াটাও একটি মৌলিক অধিকার। ত্রিশ লক্ষ রক্তের বিনিময়ে আমরা মুক্তিযুদ্ধ অর্জন করেছি। এখানে কেউ ভিক্ষা চাইতে আসেনি। যুবকরা কাজ করতে চায়, ন্যায্য মজুরি চায়। যুবকরা দেশকে এগিয়ে নিতে চায়। কিন্তু শোষকের দল, যারা লুটপাটের সঙ্গে জড়িত, তারা দেশকে এগিয়ে নিতে চায় না।

বদিউল আলম মজুমদার বলেন, ষাটের দশকে আমরা একটা স্লোগান দিতাম ‘বাঁচার মতো বাঁচতে চাই’, এ আন্দোলনের ধারাবাহিকতায় দেশে মুক্তিযুদ্ধ অর্জিত হয়েছে। এ স্লোগানের সঙ্গে আরেকটি স্লোগান যুক্ত হয়েছে ‘ঘুষ ছাড়া চাকরি চাই’।

সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক হাফিজ আদনান রিয়াদের সঞ্চালনায় সমাবেশে বক্তব্য দেন অভিনেত্রী সুমনা সোমা, জাতীয় যুব মৈত্রীর সভাপতি সাব্বাহ আলী, জাতীয় যুব জোটের সভাপতি রোকনুজ্জামান, বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি জিএম জিলানী শুভ, বাংলাদেশ যুব ইউনিয়নের প্রেসিডিয়াম সদস্য শেখ আবদুল মান্নান, সাংগঠনিক সম্পাদক শিশির চক্রবর্তী, নারী বিষয়ক সম্পাদক জোনাকি জাহান প্রমুখ।

এমএসএস/এমআরএম/এএইচ/জেআইএম