ডিএনসিসি নির্বাচন স্থগিত বিএনপির ষড়যন্ত্রে : হাছান মাহমুদ

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬:৪৬ পিএম, ১৯ জানুয়ারি ২০১৮
ফাইল ছবি

বিএনপির ষড়যন্ত্রের কারণে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) উপ নির্বাচন স্থগিত হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক হাছান মাহমুদ।

শুক্রবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের ভিআইপি কনফারেন্স লাউঞ্জে বাংলাদেশ স্বাধীনতা পরিষদ আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এ অভিযোগ করেন।

হাছান মাহমুদ বলেন, নেতিবাচক রাজনীতি থেকে বিএনপি জামায়াত এখনও বেরিয়ে আসতে পারেনি। ভাটারা থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এবং ভাটারা থানার ইউনিট বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এবং নগর বিএনপির নেতা কামরুজ্জামান রতনের করা মামলায় এ নির্বাচন স্থগিত হয়েছে। দুটি মামলার বাদি বিএনপি নেতারা। সুতরাং নির্বাচন স্থগিত হওয়ার কারণ হচ্ছে বিএনপি এবং তাদের ষড়যন্ত্র।

তিনি বলেন, বিএনপি এমন একজনকে মনোনয়ন দিয়েছে যিনি এবং তার মা, বাবা, ভাই সবাই অর্থ পাচারকারী। সবার নাম পানামা পেপারর্সে এসেছে। বেগম খালেদা জিয়া, তারেক জিয়া, তাবিথ আউয়াল, তাবিথ আউয়ালের বাবা আব্দুল আউয়াল মিন্টু এবং তার মাসহ সবাই মিলে অর্থ পাচার করেছেন। অর্থাৎ সমস্ত অর্থ পাচারকারীরা একজোট।

তিনি বলেন, আমাদের দল থেকে শুধুমাত্র মেয়র প্রার্থী নয় কাউন্সিলর প্রার্থীদের নামও চূড়ান্ত করা হয়েছিল। প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতির ধানমন্ডি কার্যালয়ে সকালে সংবাদ সম্মেলন ডাকা হয়েছিল প্রার্থীদের নাম ঘোষণার জন্য। তবে আদালতের নির্বাচন স্থগিত করে রায় দেয়ায় নামগুলো ঘোষণা করা হয়নি। বিএনপি কিন্তু মেয়র প্রার্থী ছাড়া অন্য কোনো প্রার্থী চূড়ান্ত করেনি। সুতরাং এটি বিএনপিরই ষড়যন্ত্র।

আয়োজক সংগঠনের সভাপতি লায়ন চিত্তরঞ্জন দাসের সভাপতিত্বে এসময় উপস্থিত ছিলেন, সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী অ্যাড. শমসুল হক টুকু, বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব সৈয়দ হাসান ইমাম, শাহাবাগ থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি জি এম আতিক, অরুণ সরকার রানা প্রমুখ।

এইউএ/এএইচ/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :