রোববার থেকে মাঠে নামছে যুবলীগ

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৯:৩৪ পিএম, ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

রোববার থেকে মাঠে নামছে যুবলীগ। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার রায়কে ঘিরে বিএনপি-জামায়াতের রাজনৈতিক কর্মসূচি রাজপথে থেকে মোকাবিলা করবে সংগঠনটি। রোববার বিকেলে গুলিস্তানের ২৩ বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে দলীয় কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশের আয়োজন করেছে যুবলীগ ঢাকা মহানগর দক্ষিণ। ওই সমাবেশ থেকেই একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সম্পন্ন না হওয়া পর্যন্ত ধারাবাহিক কর্মসূচি নিয়ে রাজধানীতে সক্রিয় থাকবে দক্ষিণ যুবলীগ।

সংগঠনের সভাপতি ইসমাইল চৌধুরী সম্রাট বলেন, ‘যুবলীগ চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ওমর ফারুক চৌধুরীর নির্দেশে বিএনপি-জামায়াতের সন্ত্রাস-নৈরাজ্য প্রতিহত করতে রাজপথে নামব। রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশে উন্নয়নের যে অগ্রযাত্রা শুরু হয়েছে তার ধারাবাহিকতার জন্য আওয়ামী লীগকে আবারও ক্ষমতায় আনতে হবে। সে কারণে নির্বাচনের আগে সন্ত্রাসী, জঙ্গির লালন-পালনকারী বিএনপি-জামায়াতকে কোন ধরনের সন্ত্রাস-নৈরাজ্য করতে দেয়া হবে না। আমরা রাজপথে থেকেই মোকাবিলা করব। যেখানেই সন্ত্রাস-নৈরাজ্য করা হবে সেখানেই প্রতিরোধ গড়ে তোলা হবে।’

সূত্র মতে, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগ ইতোমধ্যে ১০০টি নির্বাচনী এলাকাভিত্তিক কমিটি গঠন করেছে। ওই কমিটিতে যুবলীগ ছাড়াও সমাজের বিভিন্ন শ্রেণির মানুষকে সম্পৃক্ত করা হয়। ওই কমিটির সদস্য এবং যুবলীগ ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সব পর্যায়ের নেতাকর্মীরা মাঠে থাকবেন। বিশেষ করে আগামী ৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত যেকোনো ধরনের নৈরাজ্য প্রতিহত করতে পাড়া-মহল্লায় সতর্ক থাকবে সংগঠনের নেতাকর্মীরা। বিএনপি-জামায়াতের নেতাকর্মীরা সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার দুর্নীতির মামলার রায়কে কেন্দ্র করে যাতে কোন ধরনের অরাজকতা সৃষ্টি করতে না পারে সেজন্য সতর্ক পাহারা দেবে।

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগ সূত্র আরও জানায়, রোববার গুলিস্তানের দলীয় কার্যালয়ের সামনে সন্ত্রাসবিরোধী বিক্ষোভ সমাবেশের আয়োজন করা হয়েছে। ওই সমাবেশে ইসমাইল চৌধুরী সম্রাটের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি থাকবেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তৃতা করবেন যুবলীগ চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ওমর ফারুক চৌধুরী, ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকন, যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক হারুনুর রশিদ।

এফএইচএস/ওআর/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :