খালেদার শাস্তির দাবিতে দেয়ালজুড়ে পোস্টারিং

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:০১ পিএম, ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ | আপডেট: ০৮:২২ পিএম, ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

বিএনপি চেয়ারপর্সন বেগম খালেদা জিয়ার শাস্তি চেয়ে রাজধানীর দেয়ালজুড়ে পোস্টার লাগানো হয়েছে। সেসব পোস্টারে ‘এতিমের টাকা আত্মসাতকারী খালেদা জিয়ার সর্বোচ্চ শাস্তি চাই’ লেখা রয়েছে। রাতের অন্ধকারে এসব পোস্টার লাগানো হয়েছে বলে স্থানীয়দের কাছে জানা গেছে।

আগামীকাল (বৃহস্পতিবার) বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে করা জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার রায় ঘোষণার দিন ধার্য রয়েছে। এ প্রেক্ষাপটে নতুন করে রাজনৈতিক অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে। দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে বিএনপি ও ২০ দলীয় জোটের শরীক দলগুলোর নেতাকর্মীরা ঢাকায় প্রবেশ করছেন। মামলার রায় খালেদা জিয়ার বিপক্ষে গেলে তারা এর প্রতিবাদে রাস্তায় নামতে পরেন।

দলের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, তাদের দলের চেয়ারপারসনকে দোষী সাবস্ত করা হয়ে সারা দেশে একযোগে আন্দোলন শুরু করা হবে। অচল করে দেয়া হবে রাষ্ট্রের সব কার্যক্রম।

অন্যদিকে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী তাদের প্রবেশ ঠেকাতে তৎপর হয়ে ঢাকায় প্রবেশের রাস্তাগুলোতে কড়া নিরাপত্তা বসিয়েছে। ফলে জনমনে বড় ধরণের রাজনৈতিক সংকট সৃষ্টির আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।

রায়কে কেন্দ্র করে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকাজুড়ে খালেদা জিয়ার সর্বোচ্চ শাস্তি চেয়ে পোস্টারিং করা হয়েছে। রাতের অন্ধকারে এসব পোস্টার লাগানো হয়েছে। রাজধানীর প্রধান প্রধান সড়কসহ পাড়া-মহল্লার ভিতরেও চোখে পড়ছে এসব পোস্টার।

পোস্টারে বেগম খালেদা জিয়া বিরুদ্ধে এতিমের অর্থ গ্রহণ, অ্যাকাউন্টবিষয়ক তথ্য, এতিমদের তহবিলের অনিয়ম, মামলার বিবরণ ও এতিমখানার অস্তিত্ব নিয়ে বিবরণ দেয়া হয়েছে। সেখানে বলা হয়েছে, এতিমদের টাকা তারেক, কোকো ও মুমিনুরের নামে বগুড়ায় ২ দশমিক ৭৯ একর জমি ক্রয় করা হয়। সে জমিতে আজ পর্যন্ত কোনো এতিমখানা তৈরি করা হয়নি। এছাড়া অদ্যবধি দেশের কোনো এতিমখানায় ওই অর্থের কিঞ্চিৎ পরিমাণও খরচ করা হয়নি বলে উল্লেখ করা হয়। এসব পোস্টারে মামলা-সংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্য তুলে ধরা হয়েছে।

মিরপুর ৭ নম্বর চলন্তিকা ক্লাবের সামনে দেয়ারজুড়ে লাগানো হয়েছে পোস্টার। কারা লাগিয়েছে সে বিষয়ে জানতে চাইলে ক্লাবের সদস্যরা জানান, কারা এসব পোস্টারিং করেছে আমরা জানি না। সকালে এসে আমাদের চোখে পড়ে।

তবে আওয়ামী লীগের অঙ্গ সংগঠনের কর্মীরা রাতের অন্ধকারে এসব পোস্টার লাগিয়েছে বলে ধারণা স্থানীয়দের।

এমএইচএম/এমবিআর/আরআইপি