সরকারের স্বেচ্চাচারিতার জবাব ব্যালট বাক্সে : ড. মোশাররফ

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৭:২২ পিএম, ০৯ মার্চ ২০১৮

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, আগামী জাতীয় নির্বাচন হতে হবে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে। সেই নির্বাচনে জনগণ ব্যালট বাক্সের মাধ্যমে আওয়ামী লীগ সরকারের স্বেচ্চাচারিতার জবাব দেবে।

শুক্রবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ও গ্রহণযোগ্য জাতীয় নির্বাচনের দাবিতে আয়োজিত ওলামা ও সুধী সম্মেলনে তিনি একথা বলেন।

ইসলামী ঐক্যজোট ঢাকা মহানগর কমিটি এই সম্মেলনের আয়োজন করে।

ইসলামী ঐক্য জোটের ঢাকা মহানগরের সভাপতি মা. ইলিয়াছ আতহারীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে খন্দকার মোশাররফ বলেন, এ সরকার ক্ষমতায় থাকা অবস্থায় অনেকগুলো ঘটনা ঘটিয়েছে। পিলখানা হত্যাকাণ্ড, ব্যাংক লুট, শেয়ারবাজার কেলেঙ্কারি, রিজার্ভ লুট, গুম-খুন, হত্যার ঘটনা ঘটিয়েছে। তাই তারা নির্বাচনের কথা শুনলেই ভয় পায়। কারণ তারা জানে জনগণ তাদের আর চায় না। যদি ভোট দিতে পারে তাহলে তারা ক্ষমতায় আসতে পারবে না।

তিনি বলেন, দেশে যে অন্যায় অত্যাচার হয়েছে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন হলে জনগণ তা ভোটের মাধ্যমে ব্যালট বাক্সে জবাব দেবে।

দেশে অন্ধকার সময় অতিবাহিত হচ্ছে উল্লেখ করে বিএনপির এই নেতা বলেন, মানুষের গণতান্ত্রিক অধিকার নেই। গণতন্ত্র অাওয়ামী লীগের বাক্সে। জনগণের ভোটের অধিকার নেই। ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি আওয়ামী লীগ যে নির্বাচন দিয়ে ১৫৪টি আসন বিনা ভোটে নির্বাচিত হয়েছিল সেটি কোনো ভোট হয়নি। জনগণ তো ভোট দিতে পারেনি, এমনকি আওয়ামী লীগের নেতা কর্মীরাও ভোট দিতে পারেননি।

তিনি বলেন, এ ভোটারবিহীন সরকার জনপ্রতিনিধিত্বের সরকার না। জনগণের ভোটে নির্বাচিত সরকার জনগণের কাছে জবাবদিহিতা করতে হয়। যেহেতু তারা জনগণের দ্বারা নির্বাচিত সরকার নয়, সেহেতু তারা জনগণের কোনো দ্বায়-দায়িত্ব পালন করছে না।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন জোটের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট মো. আবদুর রকিব, মহাসচিব মাও. আব্দুল করিম, জাতীয় পার্টি (জাফর) মহাসচিব মোস্তফা জামাল হায়দার চৌধুরী প্রমুখ।

জেইউ/এমবিআর/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :