মানুষ সরকারকে প্রত্যাখ্যানের অপেক্ষায় আছে : মোশাররফ

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০২:২০ পিএম, ২৫ এপ্রিল ২০১৮

ভোটের মাধ্যমে দেশের মানুষ সরকারকে প্রত্যাখ্যানের জন্য অপেক্ষা করছে বলে মন্তব্য করে বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, ‘সরকার আবারও ৫ জানুয়ারির মতো পাতানো খেলা খেলতে চায়। গত নির্বাচন নিয়ে প্রধানমন্ত্রী দেশের মানুষ এবং বিদেশিদের সঙ্গে প্রতারণা করেছেন।’

বুধবার দুপুরে বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে নয়াপল্টনে দলটির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে তিনি এ কথা বলেন।

খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, ‘আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন অংশগ্রহণমূলক হতে হবে। বেগম খালেদা জিয়াকে ছাড়া, বিএনপিকে ছাড়া দেশে কোনো নির্বাচন হবে না, হতে দেয়া হবে না।’

তিনি বলেন, ‘ভুয়া মামলায় বেগম খালেদা জিয়াকে সরকার কারাগারে আটক রেখেছে। প্রথমে ডিভিশন না দিয়ে তাকে নির্যাতন করা হয়েছে।’

jagonews24

সরকার আগামী নির্বাচনে বেগম খালেদা জিয়া এবং বিএনপিকে বাইরে রাখার চেষ্টা করছে অভিযোগ করে তিনি বলেন, ‘বিএনপিকে বাইরে রেখে সরকার আবারও ৫ জানুয়ারির মতো পাতানো খেলা খেলতে চায়।’

তিনি বলেন, নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনেই আগামী সংসদ নির্বাচন হবে।’

এ সময় দলের স্থায়ী কমিটির আরেক সদস্য মির্জা আব্বাস দলীয় নেতাকর্মীদের আরও সুসংগঠিত হওয়ার তাগিদ দেন।

তিনি বলেন, ‘এইভাবে আপনারা যার যার এলাকায় সুসংগঠিত হয়ে প্রস্তুত থাকুন। গণআন্দোলনের মাধ্যমে এই স্বৈরাচার সরকার ভেসে যাবে।’

স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেন, ‘দেশের সংবিধান মানা হচ্ছে না। বাংলাদেশকে বিকলঙ্গ রাষ্ট্রের দিকে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে।’

তিনি বলেন, ‘১৯৬৮ সালে স্বৈরাচার আইউব খান উন্নয়নের মিছিল করেছিল। এর পর দেশ স্বাধীন হয়েছে। এই সরকারও উন্নয়নের কথা বলে মিছিল করছে।’

তারেক রহমানের নাগরিকত্ব ইস্যুতে তিনি বলেন, ‘পাসপোর্টের মেয়াদ আছে, নাগরিকত্বের মেয়াদ নেই।’

মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল নোমান, অ্যাডভোকেট আহমেদ আযম খান, উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য জয়নুল আবদিন ফারুক, আমান উল্লাহ আমান, আবুল খায়ের ভূঁইয়া, জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবীর রিজভী, কেন্দ্রীয় নেতা রফিক শিকদার, বজলুল করিম চৌধুরী আবেদ প্রমুখ বক্তৃতা করেন।

কেএইচ/এমএমজেড/আরআইপি

আপনার মতামত লিখুন :