‘মাদক ও দানবাধিকার নিয়ে মায়াকান্নার রাজনীতি অচল’

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮:৪১ পিএম, ২৬ মে ২০১৮
ফাইল ছবি

তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেছেন, ‘জঙ্গিদমন ও মাদকবিরোধী অভিযান শূন্য সহিষ্ণু নীতিতেই পরিচালিত হবে। কারণ মানুষ বাঁচাতে দানবের বিরুদ্ধে এ অভিযান। আর দানবাধিকারের জন্য মায়াকান্নার রাজনীতি এখন অচল।’

শনিবার বিকেলে পল্টনের মুক্তি ভবন মিলনায়তনে ন্যাপ (মোজাফফর)-এর প্রয়াত সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ নজরুল মজিদ বেলাল স্মরণে ১৪ দল আয়োজিত সভায় মন্ত্রী একথা বলেন।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘শেখ হাসিনার সরকার কখনও বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ডের অনুমতি দেয় না। একাত্তরে গণহত্যা, বঙ্গবন্ধু হত্যা, ২১ আগস্টের গ্রেনেড হামলাকারীদের মধ্যে স্বীকৃত খুনিদেরও বিনা বিচারে হত্যা করা হয়নি, বহুবছর পর হলেও শেখ হাসিনার সরকারই তাদের বিচারের আওতায় এনেছে।’

‘অন্যদিকে জিয়াউর রহমান ও খালেদা জিয়া হচ্ছে বিনা বিচারে হত্যাকাণ্ডের হোতা এবং বিএনপি হচ্ছে সব বিচারবহির্ভূত হত্যাকারীদের আস্তানা’ উল্লেখ করে ইনু বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু হত্যাকারীদের দায়মুক্তির আইন করে তাদের পুরস্কৃত করেছিল জিয়া, ক্লিনহার্ট অপারেশনে ৮০ জনের অধিক মানুষ হত্যার দায়মুক্তির আইন করেছিল খালেদা জিয়া। তারা ২১ আগস্টের গ্রেনেড হামলা ও সাম্প্রতিককালে আগুন-সন্ত্রাসে একশ’রও বেশি মানুষ পুড়িয়ে হত্যার অপরাধীদেরও বাঁচানোর ষড়যন্ত্রে লিপ্ত।’

এ সময় ন্যাপ (মোজাফফর)-এর প্রয়াত সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ নজরুল মজিদ বেলালকে জঙ্গি ও মাদক দমনের সাহসী সৈনিক হিসেবে বর্ণনা করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘জঙ্গি ও মাদক দমনে সফলতার মাধ্যমেই অধ্যক্ষ বেলালের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে হবে।’

সভায় উপস্থিত ছিলেন সমাজকল্যাণ মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন, সিপিবি সভাপতি মোজাহিদুল ইসলাম সেলিম, আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য মোজাফফর হোসেন পল্টু, বাংলাদেশের সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ বড়ুয়া প্রমুখ।

এইউএ/জেএইচ/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :