সরকারি দল ছাড়া জাতীয় ঐকমত্য হবে না : সাকি

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১১:৩০ পিএম, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮

গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকি বলেছেন, ‘আমাদের একটা গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা গড়ে তুলতে হবে। এ জন্য আমরা বলেছি, যে একটা জাতীয় সনদ তৈরি করতে হবে। যার ভিত্তিতে রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে জাতীয় ঐকমত্য তৈরি হতে পারে। একটা জাতীয় কনশাসনেস দরকার, সরকারি দলের সাথেও। কেননা, সরকারি দল ছাড়া জাতীয় ঐকমত্য হবে না। এই ন্যাশনাল কনশাসনেস তৈরি করতে আমাদের পক্ষ থেকেও উদ্যোগ আছে, জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার তরফেও আছে।’

বুধবার সন্ধ্যায় রাজধানীর বেইলি রোডে ড. কামাল হোসেনের বাসার আঙ্গিনায় সাংবাদিকদের সামনে এসব কথা বলেন।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে জোনায়েদ সাকি বলেন, ‘আমাদের মধ্যে অনেকদিন ধরেই আলোচনা চলছে। গণসংহতি আন্দোলনের পক্ষ থেকেও একটি সনদ তৈরি করেছি। বিদ্যমান যে রাজনৈতিক ব্যবস্থার মধ্যে আমরা আছি, সেই ব্যবস্থা ফেল করে যাচ্ছে। এটা সংঘাত ছাড়া নতুন কিছু দিতে পারছে না।’

তিনি বলেন, ‘কাজেই আমাদের নতুন একটি রাজনৈতিক ব্যবস্থায় যেতে হবে। কতগুলো নতুন শর্তে আমাদের যেতে হবে। যেখানে রাজনৈতিক দলগুলোর শান্তিপূর্ণ সহাবস্থান সম্ভব।’

জোনায়েদ সাকি বলেন, ‘বাংলাদেশের বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে সকলেই উদ্বিগ্ন। জনগণের নিরাপত্তা নিয়ে, দেশের নিরাপত্তা নিয়ে সবাই উদ্বিগ্ন। সেদিক থেকে ঐক্যবদ্ধ কাজের অনেক জায়গা আছে। সে ঐক্যবদ্ধ কাজগুলো কীভাবে আরও এগিয়ে নিয়ে যাওয়া যায়, সে বিষয় নিয়ে বাম গণতান্ত্রিক জোটে আলোচনা করা হবে। জাতীয় ঐক্যপ্রক্রিয়ার সঙ্গে আলোচনা চলবে।’

‘কীভাবে আমরা ঐক্যবদ্ধভাবে দেশের নিরাপত্তা, মানুষের নিরাপত্তা এবং গণতান্ত্রিক সংগ্রাম কীভাবে গড়ে তুলতে পারি, সে বিষয়ে কাজ করতে হবে।’ বলেন সাকি। ড. কামাল হোসেন গণসংহতি আন্দোলনের প্রস্তাব ইতিবাচকভাবে মূল্যায়ন করেছেন- বলে জানান জোনায়েদ সাকি।

গণসংহতি আন্দোলনের পরিচালনা কমিটির সদস্য ফিরোজ আহমেদ, দেওয়ান আবদুর রশিদ নিলু, আবুল হাসান রুবেলসহ অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

ইউএ/বিএ

আপনার মতামত লিখুন :