আপা মন্ত্রী হবে তাই…

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০২:৫৮ পিএম, ১৫ নভেম্বর ২০১৮

‘আপারে চিনেন না! দল ক্ষমতায় গেলে আপা কনফার্ম মন্ত্রী হবে। উনি শামা ওবায়েদ, সাবেক বিএনপি নেতা কে এম ওবায়েদুর রহমানের মেয়ে।’ বৃহস্পতিবার দুপুর পৌনে ১২টায় ফরিদপুর-২ আসনের মনোনয়নপত্র জমা দিয়ে পল্টন পার্টি অফিসের বিপরীত দিকে রাখা গাড়িতে উঠার সময় দলীয় কর্মীরা তাকে ঘিরে ধরে সেলফি তোলায় ব্যস্ত হয়ে পড়েন। এ সময় একজন কর্মী এ প্রতিবেদককে উদ্দেশ করে এ কথা বলেন।

শামা ওবায়েদও কাউকে না করছেন না। অনেকক্ষণ রোদে দাঁড়িয়ে সেলফি তোলার আবদার রক্ষা করেন। একটু পর অবশ্য ব্যাগ থেকে রোদচশমা বের করে চোখে দেন।

শুধু শামা ওবায়েদ নন, যারাই মনোনয়ন দিতে আসেন তাদের সঙ্গে নেতাকর্মীরা প্রমাণ রাখতে সেলফি তুলে রাখছেন। কাউকে কাউকে মিস্টি খাওয়ার আবদার করতে দেখা যায়। নেতারা তাদের আবদার রক্ষা করার চেষ্টা করেছেন যথাসাধ্য। নেতাদের কেউ পকেট থেকে বের করে ৫০০ টাকার দু-চারটা নোট বের করে দেন।

বুধবার (১৪ নভেম্বর) পুলিশের সঙ্গে ধাওয়া পাল্টা-ধাওয়া, সংঘর্ষ ও পুলিশের গাড়িতে অগ্নিসংযোগের ঘটনায় একাধিক মামলা দায়ের হলেও আজ বৃহস্পতিবার সকাল থেকে নেতাকর্মীদেরকে দলীয় কার্যালয়ের সামনে জড়ো হতে দেখা যায়। এ সময় বিজয়নগর নাইটেঙ্গেল মোড়ে পুলিশ সদস্যদেরও অবস্থান করতে দেখা গেছে।

সকাল পেরিয়ে দুপুর ১২টা বাজতে না বাজতেই বিএনপির নয়া পল্টনের কেন্দ্রীয় দলীয় কার্যালয় হাজারও নেতাকর্মীদের পদচারণায় মুখরিত হয়ে উঠেছে। ট্রাকে বাদ্যবাজনাসহ বিভিন্ন নেতার পোস্টার ব্যানার নিয়ে মিছিল করছেন, স্লোগান দিচ্ছেন কর্মীরা।

দুপুর হলেও বিএনপি কার্যালয়ের সামনে পুলিশ সদস্যদের উপস্থিতি চোখে পড়েনি। তবে বিজয়নগর ও ফকিরাপুল মোড়ে পুলিশের সতর্ক অবস্থান দেখা যায়।

সকালের দিকে নেতাকর্মীদের মধ্যে আতঙ্ক থাকলেও বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে আতঙ্ক কাটতে থাকে। বেলা সোয়া ১১টার দিকে দলীয় মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর কার্যালয় ঘুরে যান। দুপুর সাড়ে ১২টায় বরকতউল্লাহ বুলুর নেতৃত্বে মিছিল বের হয়।

এমইউ/এসআর/আরআইপি

আপনার মতামত লিখুন :