সংসদ নির্বাচনে বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে শাস্তির সিদ্ধান্ত আ.লীগের

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০২:৪৭ পিএম, ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, জাতীয় নির্বাচনে আওয়ামী লীগের যারা বিদ্রোহী প্রার্থী ছিলেন তাদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। নেত্রী (প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা) দেশে ফিরলেই (জার্মানি থেকে) এই সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে।

সোমবার রাজধানীর ধানমন্ডিতে দলের সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে সম্পাদকমণ্ডলীর সভার পর সাংবাদিকদের ব্রিফিংয়ে তিনি এ কথা বলেন।

বায়দুল কাদের বলেন, সম্পাদকমণ্ডলীর সভায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের কর্মসূচি পালন, আসন্ন উপজেলা নির্বাচন নিয়ে আলোচনা এবং একাদশ জাতীয় নির্বাচনে যারা বিদ্রোহী প্রার্থী ছিলেন তাদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে।

এ ছাড়া সভার শুরুতে আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য, বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মমতাজ উদ্দীন আহমেদের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করা হয়।

উপজেলায় যারা দলীয় সিদ্ধান্ত উপেক্ষা করে বিদ্রোহী প্রার্থী হবেন তাদের বিষয়ে কী সিদ্ধান্ত- এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, তাদের ব্যাপারেও কঠোর শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আরেক প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, আওয়ামী লীগের ডিকশনারিতে হতাশা বলে কোনো শব্দ নেই। আওয়ামী লীগ হতাশ হতে জানে না।

উপজেলা নির্বাচনে বিএনপি অংশ না নেয়ার সমালোচনা করে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, জাতীয় নির্বাচনের মতো উপজেলা নির্বাচনেও ভরাডুবি হবে, এ কারণে তারা উপজেলা নির্বাচনে আসছে না। তবে বিএনপির তৃণমূলের অনেকে কেন্দ্রের সিদ্ধান্ত ভায়োলেট করে নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হচ্ছে।

এক প্রশ্নে জবাবে কাদের বলেন, গাইবান্ধায় যাকে উপজেলা চেয়ারম্যান পদে দলীয় মনোনয়ন দেয়া হয়েছে তিনি যুদ্ধাপরাধী বলে যে অভিযোগ উঠেছে তা আমরা তদন্ত করে দেখব। অভিযোগ সত্য হলে তার প্রার্থিতা বাতিল করা হবে।

জামায়াতের নতুন দল গঠন-সংক্রান্ত এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, নাম পরিবর্তন করলেন, কিন্তু আদর্শ পরিবর্তন করলেন না। তাহলে তো একই বিষয় রয়ে গেল।

আরেক প্রশ্নের জবাবে কাদের বলেন, আমরা মনে করি, জামায়াতকে নিষিদ্ধ করার জন্য সবসময়ই আমাদের কাছে উপযুক্ত সময়। এ বিষয়ে কোর্টে মামলা রয়েছে, আমরা অপেক্ষা করছি।

সংবাদ সম্মেলনে দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল-আলম হানিফ, আবদুর রহমান, জাহাঙ্গীর কবির নানক, নৌ পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, দফতর সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপ এমপি, শ্রমবিষয়ক সম্পাদক হাবিবুর রহমান সিরাজ, কৃষিবিষয়ক সম্পাদক ফরিদুন্নাহার লাইলী, সংস্কৃতিবিষয়ক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এফএইচএস/জেডএ/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :