বাংলাদেশ-ভারত চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক নিয়ে খোলামেলা আলোচনার দাবি

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৮:৫২ পিএম, ০৯ অক্টোবর ২০১৯

সম্প্রতি স্বাক্ষরিত বাংলাদেশ-ভারত চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক নিয়ে সংসদের ভেতরে ও বাইরে খোলামেলা আলোচনার দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জাসদ।

বাংলাদেশ জাসদের সভাপতি শরীফ নুরুল আম্বিয়া ও সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হক প্রধান এক যুক্ত বিবৃতিতে এ দাবি জানান।

তারা বলেন, প্রধানমন্ত্রীর সাম্প্রতিক ভারত সফরের সময় সাতটি চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়েছে বলে সরকার জানিয়েছে। ভারতের জনগণের সঙ্গে বাংলাদেশের জনগণের ঐতিহাসিক বন্ধুত্বের নিরিখে অধিকাংশ চুক্তির ব্যাপারে নীতিগত বিরোধ না থাকলেও এটা জোর দিয়ে বলা যায় যে, বাংলাদেশের সঙ্গে ভারতের দ্বিপক্ষীয় সমস্যাগুলো সমাধানে কোনো চুক্তিই করা হয়নি। বিশেষ করে বাংলাদেশের জনগণের জন্য জ্বলন্ত সমস্যা তিস্তা নদীর পানিবন্টন নিয়ে কোনো অগ্রগতি হয়নি। রোহিঙ্গা ইস্যুতে কাঙ্ক্ষিত সমর্থন পাওয়া যায়নি। ভারতের চূড়ান্ত নাগরিকপুঞ্জকরণ (এনআরসি) ইস্যুতে মৌখিকভাবে আশ্বস্ত করা হলেও দেশবাসীর উদ্বেগ নিরসন করার মতো কোনো কথা বলা হয়নি।

উপকূল অঞ্চলে নজরদারির জন্য রাডার স্থাপনের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়ার আগে আরও পর্যালোচনা করা উচিত বলে মনে করে বাংলাদেশ জাসদ। জাসদ বলছে, ফেনী নদীর পানি দেয়া, দেশের সমুদ্রবন্দরসমূহ ভারতকে ব্যবহার করতে দেয়া, পূর্ব ভারতে এলএনজি সরবরাহসহ চুক্তি ও সমঝোতার অন্যান্য সব বিষয়ে সংসদের ভেতরে ও বাইরে খোলামেলা আলোচনা করতে হবে। সরকারকে এ বিষয়ে উদ্যোগী হবার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন জাসদের এই দুই শীর্ষ নেতা।

এমইউ/এসআর/এমকেএইচ