গায়ে যে জার্সিই থাকুক দুর্নীতিবাজদের ঠিকানা হবে খালেদার পাশে

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫:৩৬ পিএম, ১৬ অক্টোবর ২০১৯

চলমান শুদ্ধি অভিযানকে স্বাগত জানিয়ে জাসদ সভাপতি হাসানুল হক ইনু বলেছেন, গায়ে যে দলেরই জার্সি থাকুক না কেন দুর্নীতিবাজ-লুটেরাদের ঠিকানা হবে জেলখানায় খালেদা জিয়ার পাশে।

বুধবার (১৬ অক্টোবর) রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে গণমিছিল-পূর্ব সমাবেশে তিনি এ কথা বলেন।

রাষ্ট্র-প্রশাসন-অর্থনীতি-সমাজের সব স্তরে সুশাসন প্রতিষ্ঠা ও চলমান দুর্নীতিবিরোধী শুদ্ধি অভিযান জোরদার এবং অব্যাহত রাখার দাবিতে দেশব্যাপী কর্মসূচির অংশ হিসেবে এ গণমিছিলের আয়োজন করে ঢাকা মহানগর জাসদ।

ইনু বলেন, দুর্নীতিবাজ-লুটেরা, অসৎ অফিসার, রাজনীতিকদের বিরুদ্ধে ত্রিমুখী অভিযান পরিচালনা করতে হবে। দুর্নীতিবাজ-লুটেরা, অসৎ অফিসার, রাজনীতিকদের অপরাধী সিন্ডিকেট ধ্বংস করতে হবে। চলমান শুদ্ধি অভিযান ও দুর্নীতিবিরোধী অভিযান জেলা-উপজেলা পর্যন্ত পরিচালনা করতে হবে।

তিনি বলেন, যে দুর্নীতিবাজ-লুটেরা উইপোকা-ইঁদুরের মতো শেখ হাসিনার অক্লান্ত পরিশ্রমের সুফল খেয়ে ফেলছে, সরকারের গায়ে কালিমা লাগাচ্ছে তারা যত ক্ষমতাবান হোক না কেন তাদের ধরতে হবে।

এ সময় সুশাসনের জন্য আইনের শাসন নিশ্চিত, মুখ বা দল না দেখে আইনের কঠোর প্রয়োগ, রাষ্ট্র-প্রশাসনের নিরপেক্ষতা নিশ্চিতের জন্য প্রধানমন্ত্রী নির্দেশিত চলমান শুদ্ধি অভিযান ও দুর্নীতিবিরোধী অভিযানের পক্ষে ১৪ দল, মহাজোটের শরিক দলগুলোর সৎ ও দেশপ্রেমিক নেতাকর্মীদের সোচ্চার হওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

জাসদ সভাপতি বলেন, খালেদা জিয়া-তারেককে মাথায় তাজ বানিয়ে বিএনপি নেতাদের দুর্নীতির বিরুদ্ধে কথা বলা ভূতের মুখে রাম নাম ছাড়া কিছুই নয়।

ঢাকা মহানগর জাসদের সমন্বয়ক মীর হোসাইন আখতারের সভাপতিত্বে গণমিছিল-পূর্ব সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন জাসদ সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতার, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোটে হাবিবুর রহমান শওকত, নুরুল আখতার, নাদের চৌধুরী, আফরোজা হক রীনা, শফি উদ্দিন মোল্লা, শহীদুল ইসলাম, ওবায়দুর রহমান চুন্নু, নইমুল আহসান জুয়েল, শওকত রায়হান, রোকনুজ্জামান রোকন, মো. মোহসীন, সাইফুজ্জামান বাদশা, মাইনুর রহমান, মো. নুরুন্নবী, অ্যাডভোটে মহিবুর রহমান মিহির, ইদ্রিস ব্যাপারী, এ কে এম শাহ আলম, ইদ্রিস আলী, উম্মে হাসান ঝলমল, শরিফুল কবির স্বপন, সামছুল ইসলাম সুমন, আহসান হাবীব শামীম প্রমুখ।

সমাবেশ শেষে জাসদের গণমিছিল বঙ্গবন্ধু এভিনিউ, গুলিস্তান, দিলকুশা, মতিঝিল, তোপখানা, প্রেস ক্লাব, বিজয়নগর, পল্টন এলাকা প্রদক্ষিণ করে। জাসদের গণমিছিলে ‘সুশাসনের বিকল্প নাই-দুর্নীতিবাজদের ক্ষমা নাই’, ‘ঘুষ, দুর্নীতির দিন শেষ-সুশাসনের বাংলাদেশ’, ‘অফিস-আদালতে ঘুষ-দুর্নীতি চলবে না- বন্ধ কর’, ‘শেখ হাসিনার নির্দেশ-দুর্নীতিমুক্ত বাংলাদেশ’, ‘শেখ হাসিনার নির্দেশ-সুশাসনের বাংলাদেশ’, ‘জাসদ লড়বে-সুশাসন আনবে’ স্লোগানে মুখরিত ছিল।

এইউএ/এএইচ/জেআইএম